Home /News /south-bengal /
তিনদিন নিখোঁজ থাকার পর ভাগীরথী থেকে কিশোরের দেহ উদ্ধার, গ্রেফতার ১

তিনদিন নিখোঁজ থাকার পর ভাগীরথী থেকে কিশোরের দেহ উদ্ধার, গ্রেফতার ১

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

Murder || অভিযুক্ত জেরায় সে স্বীকার করেছে, প্রথমে রনিকে গলায় ফাঁস দিয়ে খুন করা হয় তারপর নদীর ধারে নিয়ে গিয়ে গলা ও পেট কেটে দেওয়া হয় যাতে দেহ নদীতে ভেসে না ওঠে।

  • Share this:

#বহরমপুর: তিনদিন নিখোঁজ থাকার পর ভাগীরথী থেকে কিশোরের দেহ উদ্ধার৷ রবিবার রাত থেকে নিখোঁজ ছিল ওই কিশোর৷  মৃতের নাম রনি হালদার (১৬)। বলরামপুরের কৃষ্ণমাটি অঞ্চলের বাসিন্দা। সূত্রের খবর, গত রবিবার রাত থেকে কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি । বুধবার সকালে নদী থেকে উদ্ধার হয় দেহ। পরিবারের অভিযোগ, এক গ্রামবাসীর সঙ্গে আপত্তিকর কিছু দেখে ফেলাতেই খুন করা হয়েছে রনিকে। অভিযুক্ত রিন্টু বিশ্বাসকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, বাবা মা দুজনেই মারা গিয়েছে। তাই বলরামপুরের কৃষ্ণমাটি অঞ্চলে ঠাকুমার কাছেই থাকত রনি হালদার। অভিযুক্ত রিন্টু বিশ্বাসের বাড়ির পিছনে নদী থেকে দেহ উদ্ধার হয়েছে। পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠায়। অভিযুক্ত জেরায় সে স্বীকার করেছে, প্রথমে রনিকে গলায় ফাঁস দিয়ে খুন করা হয় তারপর নদীর ধারে নিয়ে গিয়ে গলা ও পেট কেটে দেওয়া হয় যাতে দেহ নদীতে ভেসে না ওঠে।

আরও পড়ুন: বোলপুর পৌঁছেই তৎপর CBI, অনুব্রতর CA-কে জিজ্ঞাসাবাদ, তলব ২ ব্যাঙ্ক আধিকারিককে

আরও পড়ুন: আজই অনুব্রতর মেয়ে, চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টকে জেরা! বোলপুরে যাচ্ছে সিবিআই

মৃত কিশোরের আত্মীয় বলরাম হালদার বলেন, "রবিবার রাত থেকে নিখোঁজ ছিল রনি। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ওর কোনও খোঁজ পাইনি। রিন্টু বিশ্বাসের সঙ্গে আপত্তিকর কিছু দেখে ফেলায় রনিকে এত নৃংশভাবে খুন করা হয়েছে। আমরা রিন্টু বিশ্বাসের কঠোর শাস্তি চাই।" হরিদাসমাটি গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান রাজা দাস বলেন, "এই ঘটনা অত্যন্ত মর্মান্তিক। ছেলেটির বাবা মা দুজনেই মারা গিয়েছে। ঠাকুমার সঙ্গেই থাকত। পুলিশ রিন্টু বিশ্বাসকে গ্রেফতার করেছে। আমরা এর উপযুক্ত শাস্তি চাই।"

Published by:Rachana Majumder
First published:

Tags: Death, Murder

পরবর্তী খবর