'নন্দীগ্রামে বহিরাগত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়'! দেওয়ালে নাম লিখে পথে নামলেন 'ঘরের ছেলে'

'নন্দীগ্রামে বহিরাগত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়'! দেওয়ালে নাম লিখে পথে নামলেন 'ঘরের ছেলে'

আগামী নির্বাচনে নন্দীগ্রামই হতে চলেছে সবচেয়ে 'হট সিট'

আগামী নির্বাচনে নন্দীগ্রামই হতে চলেছে সবচেয়ে 'হট সিট'

  • Share this:

    #নন্দীগ্রাম: ভবানীপুর নয়, কেবলমাত্র নন্দীগ্রাম থেকেই ভোটে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এতদিন ধরে বিজেপি কটাক্ষ করে চলেছিল, ভবানীপুর নিরাপদ নয় বলেই আরও এক আসনে দাঁড়াচ্ছেন মমতা। কিন্তু সেই কটাক্ষকে স্থায়ী হতে দেননি তৃণমূল নেত্রী। বাংলার ক্ষমতা ধরে রাখতে নন্দীগ্রাম কেন্দ্রে নিজের জন্য বাজি ধরেছেন মমতা। এবার তাই, তৃণমূল সুপ্রিমোকে আক্রমণ শানাতে তাঁর নিজের 'বহিরাগত' তত্ত্বকেই সামনে নিয়ে এলেন 'ঘরের ছেলে' শুভেন্দু অধিকারী। শনিবার নন্দীগ্রামের পথে নেমে ব্রিগেডের প্রচারপর্ব সারেন শুভেন্দু। দেওয়াল লিখনেও নাম পড়ে গিয়েছে তাঁর। আর সেই প্রচারের মাঝেই তিনি বলেন, 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই তো বহিরাগত নন্দীগ্রামে। উনি বুথ স্তরেও হেরেছেন। আমি কখনও বুথ স্তরে হারিনি। তোলাবাজের পার্টির প্রধান নেত্রীকে বলে-বলে হারাব।'

    ভোটের নির্ঘণ্ট প্রকাশ হয়ে গিয়েছে বেশ কয়েকদিন। রাজ্য়ের ২৯১ আসনে নিজের দলের প্রার্থীর নাম জানিয়ে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এখনও প্রকাশিত হয়নি বিজেপির প্রার্থীতালিকা। শুক্রবার তালিকা প্রকাশের কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে তা বাতিল হয়। দলীয় তরফে জানানো হয়, রবিবার নরেন্দ্র মোদীর ব্রিগেড সমাবেশের পরই প্রকাশিত হবে প্রার্থীতালিকা। কিন্তু সূত্রের খবর, মোদীর ব্রিগেডের আগে শনিবারই প্রথম ২ দফার প্রার্থীতালিকা ঘোষণা করতে পারে বিজেপি। আর তাতে নন্দীগ্রাম কেন্দ্রে দলীয় প্রার্থীর নাম শুভেন্দু অধিকারী।

    মোদ্দা কথা, আগামী নির্বাচনে নন্দীগ্রামই হতে চলেছে সবচেয়ে 'হট সিট'। তেখালির মাঠে দাঁড়িয়ে যেদিন মমতা নন্দীগ্রামকে 'মেজো বোন' বলে সম্বোধন করে সেখান থেকেই ভোটে দাঁড়ানোর কথা জানান, সেদিনই শুভেন্দু দাবি করেছিলেন, 'আমাকে দল দাঁড়াতে বললে আমি হারাব। আর অন্য় কেউ দাঁড়ালেও মাননীয়াকে পঞ্চাশ হাজারের বেশি ভোটে হারাব।' সূত্রের খবর, একদম প্রাথমিক স্তরে নিজেই নন্দীগ্রাম থেকে লড়তে চাইছিলেন না শুভেন্দু। কিন্তু সেক্ষেত্রে 'ভয় পেয়েছে' বলে পালটা আক্রমণের হাতিয়ার পেয়ে যেত তৃণমূল। তাই দলীয় শীর্ষ নেতৃত্বের নির্দেশেই নন্দীগ্রামকেই নিজের জন্য় বেছে নিতে হচ্ছে শুভেন্দুকে। যদিও রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো সদ্য বিজেপিতে যাওয়া নেতার দাবি, শুভেন্দু নিজেই নন্দীগ্রামে দাঁড়ানোর জন্য দলীয় নেতৃত্বকে বলেছেন।

    শুক্রবার তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর মমতার বিরুদ্ধে সুর আরও চড়া করেছেন শুভেন্দু। শুক্রবারও তিনি বলেছিলেন, 'ভবানীপুরে হারবেন ভয়ে মুখ্যমন্ত্রী নন্দীগ্রামে পালিয়ে গিয়ে দাঁড়িয়েছেন। ভবানীপুরে যে ভোটে হারতেন তার তিনগুণ ভোটে হারিয়ে ওকে কলকাতায় পাঠিয়ে দেব।' আর শনিবার নন্দীগ্রামে মমতাকে সরাসরি 'বহিরাগত' বলে আক্রমণ শানালেন তিনি।

    বিজেপি সূত্রে খবর, দলের কোর কমিটির বৈঠকে নন্দীগ্রামে প্রার্থী হতে চেয়ে নিজেই অনুরোধ করেন শুভেন্দু। তাঁকে সমর্থন জানান বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষও। মমতাকে চাপে রাখার পাশাপাশি বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে যে রিপোর্ট পৌঁছেছে, তাতে মমতাকে হারানোর বিষয়ে আশাবাদী বিজেপি। তাই শুভেন্দুই নন্দীগ্রামে গেরুয়া প্রার্থী। আর সেই কারণেই প্রার্থীতালিকা প্রকাশের আগেই শুভেন্দুর নামে দেওয়াল লিখন শুরু হয়ে গিয়েছে নন্দীগ্রামজুড়ে।

    Published by:Suman Biswas
    First published: