Home /News /south-bengal /

Birbhum: ছাদ থেকে অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে ধাক্কা মেরে ফেলে খুন, অভিযোগ শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে

Birbhum: ছাদ থেকে অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে ধাক্কা মেরে ফেলে খুন, অভিযোগ শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে

গুরুত্বর জখম অবস্থায় বাড়ির বৌকে বোলপুর হাসপাতালে ভর্তি করে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা ৷

  • Share this:

#বীরভূম: বাড়ির ছাদ থেকে অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে ফেলে খুন করার অভিযোগ উঠল শ্বশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। গুরুত্বর জখম অবস্থায় বাড়ির বৌকে বোলপুর হাসপাতালে ভর্তি করে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা ৷

আরও পড়ুন: গভীর রাতে নিরাশ্রয় পথবাসীদের কম্বল দিলেন জেলাশাসক

জানা যায়, মৃতার নাম বীণা খাতুন, বয়স ২৪। ১ বছর আগে বর্ধমান জেলার কেতুগ্রাম থানার কাটারি গ্রামের বাসিন্দা বীণার বিয়ে হয়েছিল বীরভূমের পাড়ুই থানার কেন্দ্রডাঙ্গাল গ্রামের গোফুর শেখের সঙ্গে । ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বীণা। অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই লেগে থাকত পারিবারিক নানা অশান্তি, সেই অশান্তির জেরেই শ্বশুর বাড়ির সদস্যরা বাড়ির তিন তলা থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয় বীণাকে। হাত-পা ভেঙে গুরুতর জখম হন বীণা। পরে শ্বশুর বাড়ির লোকজনই তাঁকে বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করে। হাসপাতালের চিকিৎসকেরা দেখেন, বীণা ইতিমধ্যেই মৃত, শ্বশুর বাড়ির সদস্যদের জানাতে তারা মৃতদেহ হাসপাতালে ফেলে রেখেই পালিয়ে যায়! হাসপাতালের পক্ষ থেকে খবর দেওয়া হয় বীণার বাপের বাড়িতে! মৃতার আত্মীয়েরা হাসপাআতালে ছুটে আসেন। খবর দেওয়া হয় পুলিশে। বীরভূম থানার পুলিশ মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যায়।

আরও পড়ুন: গভীর রাতে নিরাশ্রয় পথবাসীদের কম্বল দিলেন জেলাশাসক

মৃতার মাসি রনিজা খাতুনের অভিযোগ, " বীণার শ্বশুর বাড়ির লোকেরা আমাদের বলেছে ও নাকি ছাদ থেকে পড়ে গিয়েছে! কিন্তু এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা! ওকে ছাদ থেকে ফেলে খুন করেছে ওরা, তার পর হাসপাতালে ভর্তি করে পালিয়ে গিয়েছে। আমরা এর বিচার চাই।"

মৃতার কাকা আব্দুর সুকুর বলেন, "আমাদের ফোন ধরছে না শ্বশুরবাড়ি লোকেরা৷ ওরাই ছাদ থেকে ফেলে অন্তঃসত্ত্বা বীণাকে মেরে দিয়েছে ৷ দোষীদের শাস্তি চাই আমরা।"

Indrajit Ruj

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: Birbhum

পরবর্তী খবর