শীতের রাতে জাতীয় সড়কে চায়ের কেটলি হাতে দাঁড়িয়ে পুলিশ, অবাক চালকেরা

শীতের রাতে জাতীয় সড়কে চায়ের কেটলি হাতে দাঁড়িয়ে পুলিশ, অবাক চালকেরা

অনেক চালক নিজেরাই জানিয়েছেন কুয়াশা ভরা শীতের রাতে গাড়ী চালাতে চালাতে সত্যিই ঘুম চলে আসে ৷ অনেক ক্ষেত্রে দুর্ঘটনার মধ্যে পড়তে হয় অসাবধানতাবশত ৷

  • Share this:

Supratim Das

#সিউড়ি: শীতের রাতে পথ দুর্ঘটনা রুখতে দাওয়াই বীরভূম জেলা ট্রাফিক পুলিশের। ১৪ নম্বর জাতীয় সড়কের বীরভূমের সিউড়ির এফসিআই গোডাউনের সামনে পুলিশের বিশেষ ক্যাম্প। জাতীয় সড়কে যাতায়াতকারী সমস্ত যানবাহনের চালকদের নামিয়ে তাঁদের সঙ্গে কিছুক্ষণ গল্প তারপর চা বা কফি সঙ্গে বিস্কুট খাইয়ে গন্তব্যস্থলে রওনা করিয়ে দেওয়া, আবার কোনও ক্ষেত্রে কোনও চালকের ঘুম আসছে মনে হলে তাঁকে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। দুর্ঘটনা রুখতে এই ব্যাবস্থা।

শীতের রাতে কুয়াশায় গাড়ি চালাতে গিয়ে চালক যাতে ঘুমিয়ে না পড়েন এবং সব সময় সজাগ থাকেন, তা নিশ্চিত করতেই এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে ৷ আর এই ব্যবস্থাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন চালকরাও। অন্ধপ্রদেশের এক চালক জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গে এই ধরনের জিনিস তিনি প্রথম দেখলেন। তাঁদের অন্ধ্রপ্রদেশে এই সমস্ত হয় না। তবে রাতবিরেতে রাস্তায় এই ভাবে পুলিশের গাড়ি দাঁড় করানো দেখে অনেক চালক প্রথমে ভয় পেয়েছিলেন ৷ তারপর চায়ের কেটলি হাতে পুলিশ দেখে অবাকও হয়েছেন। পরে বুঝলেন এ আসলে চালকদের নিজেদের ভালর জন্যই।

1890_20191230_080356

অনেক চালক নিজেরাই জানিয়েছেন কুয়াশা ভরা শীতের রাতে গাড়ী চালাতে চালাতে সত্যিই ঘুম চলে আসে ৷ অনেক ক্ষেত্রে দুর্ঘটনার মধ্যে পড়তে হয় অসাবধানতাবশত ৷ তাই এই উদ্যোগ সেই দুর্ঘটনা রুখতে অনেকটার কার্যকারী হবে বলেই মনে করছেন তাঁরা।

First published: 09:06:17 AM Dec 30, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर