দক্ষিণবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

যক্ষা রোগীদের সহায়তায় রাজ্যে শীর্ষে বীরভূম

যক্ষা রোগীদের সহায়তায় রাজ্যে শীর্ষে বীরভূম

জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক হিমাদ্রি আড়ি জানান, স্বাস্থ্য দফতরের একটি দল সম্প্রতি জেলা সফরে এসে ত্রুটিগুলি কাটিয়ে দিয়েছেন ।

  • Share this:

করোনা আবহের মধ্যেও যক্ষা রোগীদের পরিষেবায় তৎপর বীরভূম জেলা প্রশাসন। যক্ষা রোগীদের পুষ্টি সহায়তা প্রকল্পের মধ্যে রাজ্যে শীর্ষে বীরভূম। কিছু প্রযুক্তিগত কারণে অনেক রোগী অনিয়মিতভাবে সহায়তার টাকা পাচ্ছেন না৷ জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক হিমাদ্রি আড়ি জানান, স্বাস্থ্য দফতরের একটি দল সম্প্রতি জেলা সফরে এসে ত্রুটিগুলি কাটিয়ে দিয়েছেন ।

এখন কর্মীরা আশা তাঁদের নির্দেশ মতো প্রশিক্ষণ চালিয়ে সঠিক সময়ে রোগীদের কাছে সহায়তা পৌঁছে দেবেন। স্বাস্থ্যকর্মীরা জানিয়েছেন, মূলত অপুষ্টিকর খাবারে নিম্নবিত্তদের মধ্যে শারীরিক দুর্বলতার কারণে এই যক্ষা রোগ দেখা যায়। যক্ষা রোগীদের দিনদিন ওজন কমতে থাকে৷ সেই কথা মাথায় রেখে সহকারী প্রশন যোজনা শুরু করা হয়েছে৷ যাতে রোগীদের প্রতি মাসে ৫০০ টাকা করে দেওয়া হবে পুষ্টির জন্য।

পুষ্টি বিধান অন্যান্য জেলায় পিছিয়ে থাকলেও বীরভূম স্বাস্থ্য জেলা রাজ্যের মধ্যে শীর্ষে। স্বাস্থ্য প্রশাসন সূত্রে খবর, আধার কার্ড ও অনলাইনের সমস্যার কারণে সকল রোগীদের সুবিধে দিতে পারছেন না। বীরভূম জেলার ১৩১১ জন রোগীদের মধ্যে সুবিধা পাচ্ছেন ১০৩১ জন। রামপুরহাটে ৭১৪ জনের মধ্যে সুবিধা পাচ্ছেন ২২৫ জন।

বিষয়টি জেলা স্বাস্থ্য দফতরে জানানো হয়৷ তারা কিছুদিনের মধ্যেই সমস্যা সমাধান করে দিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে সম্পর্কে চিকিৎসকেরা জানান, অনুদান না পেলে রোগীদের পুষ্টিতে ফের ঘাটতি হবে ফলে পরিস্থিতি ভয়ঙ্কর হতে পারে । অন্যদিকে বীরভূম স্বাস্থ্য জেলা পাচামি, আদিবাসী পল্লিতে সংক্রমণের হার অনেক বেশি । গত এক বছরে ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে। রামপুরহাট স্বাস্থ্য জেলার মুখ্য সচিব আধিকারিক জানান, কিছু ভুল ত্রুটির কারণে সহায়তায় ঘাটতি ছিল৷ তারা আশাবাদী সামনের মাসের মধ্যেই সকল যক্ষা রোগীদের সহায়তা করতে পারবেন প্রশাসন।

SUPRATIM DAS

Published by: Rukmini Mazumder
First published: August 19, 2020, 11:54 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर