পথে কোথাও অসুবিধা হয়ে থাকলে ক্ষমা করবেন, পরিযায়ী শ্রমিকদের হাত জোড় করে বললেন ওসি

রাজ্য প্রশাসনের এই উদ্যোগে খুশি যাঁরা এতদিন আটকে পড়েছিলেন সেই শ্রমিক ও বীরভূমের বাসিন্দারা।

রাজ্য প্রশাসনের এই উদ্যোগে খুশি যাঁরা এতদিন আটকে পড়েছিলেন সেই শ্রমিক ও বীরভূমের বাসিন্দারা।

  • Share this:

Supratim Das

#বীরভূম: বীরভূমের মাটিতে পা দিলেন লকডাউনের জেরে বিভিন্ন রাজ্যে আটকে পড়া শ্রমিক ও চিকিৎসা করতে যাওয়া ব্যক্তিরা। আজ বাঁকুড়ায় যে শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেন আসে, সেই ট্রেনে বাঁকুড়াতে নামার পর বাঁকুড়া থেকে তাঁদেরকে প্রশাসন বাসে করে নিয়ে আসে বীরভূমে। প্রথমেই বীরভূমের মহম্মদ বাজারের টেস্টিং পয়েন্টে তাঁদেরকে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রত্যেককে খাবার-দাবার দেওয়া হয় বীরভূম জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এরপর প্রত্যেকের থার্মাল স্ক্রিনিং ও লালা রস নেওয়া হয় পরীক্ষার জন্য।  এরপর তাঁদেরকে ফের বাসে করেই বীরভূমের নিজের নিজের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয় । তাঁদের প্রত্যেককেই বাড়ি থেকে বেরোতে আপাতত বারণ করা হয়েছে। লালারসের পরীক্ষার রিপোর্ট আসার পর তাঁদের প্রত্যেককে জানিয়ে দেওয়া হবে তাঁদের রিপোর্টের ফলাফল৷ রাজ্য প্রশাসনের এই উদ্যোগে খুশি যাঁরা এতদিন আটকে পড়েছিলেন সেই শ্রমিক ও বীরভূমের বাসিন্দারা।

তবে বীরভূম জেলা প্রশাসন ও বীরভূম জেলা পুলিশের এই ব্যবস্থাপনায় খুশি সদ্য ফিরে আসা বীরভূমের এই বাসিন্দারা। বীরভূম মহম্মদবাজার থানার পুলিশ ওই সমস্ত বীরভূমের বাসিন্দাদের বাসে চাপিয়ে দেন নিজের বাড়িতে পৌঁছানোর জন্য। গোটা যাত্রাপথের কোথাও কোনও যাত্রীর কোনও রকম অসুবিধা হয়ে থাকলে তা ক্ষমা করে দেওয়ার আর্জি জানিয়ে হাতজোড় করেন বীরভূমের মহম্মদ বাজার থানার ওসি মহম্মদ আলি।

Published by:Simli Raha
First published: