• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • BENGAL NEWS AADHAAR CARD SCAM CAUGHT RED HANDED IN BURDWAN TMC PARTY OFFICE SANJ

Bengal News| Aadhaar Card : পার্টি অফিসেই চেয়ার টেবিল পেতে 'মোটা টাকা' নিয়ে আধার কার্ড তৈরির কাজ! তারপর?

রমরমিয়ে চলছে অসাধু কাজ

Bengal News| Aadhaar Card : গরিব মানুষের আধার কার্ড করিয়ে দেবার নামে টাকা নেওয়ার অভিযোগকে ঘিরে চাঞ্চল্য।

  • Share this:

#বর্ধমান : এবার আধার কার্ড (Bengal News| Aadhaar Card) করানোর নামে টাকা আদায়ের অভিযোগ। পূর্ব বর্ধমানের কালনায় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এক এক জনের কাছ থেকে পাঁচশো টাকা করে নেওয়ার অভিযোগ (Bengal News| Aadhaar Card) উঠেছে। অভিযোগ শাসক দলের নেতাদের মতেই চলছিল এই অসাধু কারবার। তৃণমূল কংগ্রেসের পার্টি (TMC Party Office) অফিসে চলছিল টাকা নিয়ে আধার কার্ড তৈরি, সংশোধনের কাজ। টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছে অভিযুক্তরা। ঘটনাকে ঘিরে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা।

তৃণমূলের পার্টি অফিস  (TMC Party Office) থেকে গরিব মানুষের আধার কার্ড করিয়ে দেবার নামে টাকা নেওয়ার অভিযোগকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনা ২-ব্লকের সাতগাছিয়া অঞ্চলের শাসপুর খেলার মাঠ এলাকায়। সাতগাছিয়া অঞ্চলের শাসপুর খেলার মাঠ সংলগ্ন তৃণমূলের একটি পার্টি অফিসের ( (TMC Party Office) ভেতর চেয়ার টেবিল সাজিয়ে এলাকার গরিব মানুষদের কাছ থেকে ৫০০ টাকা করে নিয়ে আধার কার্ড করে দেওয়া হচ্ছিল। বাপ্পা দত্ত নামে এক ব্যক্তির তত্ত্বাবধানে এই কাজ চলছিল বলে অভিযোগ করেছেন কার্ড করতে আসা একাধিক বাসিন্দা। উল্লেখ্য এই পার্টি অফিসটির দায়িত্বে আছেন সাতগাছিয়া অঞ্চলের তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক সুব্রত দাস।

তৃণমূল কংগ্রেসের (Trinamool Congress) পার্টি অফিসে  এই রকম অনৈতিক কাজ কী ভাবে চলছিল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। তৃণমূল নেতা বাবন দাস জানান, পাঁচশো টাকার বিনিময়ে আধার কার্ড করা হচ্ছিল দলের পার্টি অফিসে। এই জিনিস পুরোপুরি বেআইনি। ঘটনার সাথে যুক্তদের শাস্তি চাই। যদিও ওই পার্টি অফিসের দায়িত্বে থাকা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা  সুব্রত দাস জানান, গরিব মানুষের আধার কার্ড করে দেওয়া হবে বলে অভিযুক্তরা এই জায়গায় বসেছিল। তারা যে টাকা নিয়েছেন এই কথা জানা ছিল না। যারা এই কাজ করেছেন তাঁদের শাস্তি হোক। কালনা দু নম্বর ব্লক বিডিও দেবল উপাধ্যায়ের কাছে এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগও দায়ের করেন আধার কার্ড করতে আসা গ্রাহকরা। ঘটনার নিন্দায় সরব বিজেপি।

শরদিন্দু ঘোষ

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: