West Bengal Election 2021: ক’দিন পরেই বীরভূমে ভোট, বড় বড় জনসভার আগে প্রাকটিস ম্যাচে প্রার্থীরা

West Bengal Election 2021: ক’দিন পরেই বীরভূমে ভোট, বড় বড় জনসভার আগে প্রাকটিস ম্যাচে প্রার্থীরা

বাদ যায়নি বসন্ত উতসবকে সামনে রেখে প্রচারও৷

বাদ যায়নি বসন্ত উতসবকে সামনে রেখে প্রচারও৷

  • Share this:

#বীরভূম: বীরভূমে নির্বাচন অষ্টম দফায়। দেখতে দেখতেই এগিয়ে আসছে সময়। ৩১ শে মার্চ থেকে মনোনয়ন শুরু হবে বীরভূমে। বীরভূম জেলায় ২৯শে এপ্রিল এই নির্বাচনের তারিখ । ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকদিন আগেই সর্ব দলীয় বৈঠক হয় বীরভূমে জেলা শাসকের দফতরে৷ সেই বৈঠকে জেলার প্রার্থীদের মনোনয়ন সংক্রান্ত আলোচনা ও মনোনয়নের সময় নিরাপত্তা ব্যবস্থা সহ আলোচনা হয়। এছাড়াও সেই বৈঠকে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল গুলো বিভিন্ন রকম প্রস্তাব দেয়। তবে বিভিন্ন দল এখনও প্রার্থীদের সমর্থনে তারকাদের নিয়ে এসে প্রচার করেনি৷

এখন রাজনৈতিক দলগুলি বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট প্রচার এবং দলীয় কর্মী সমর্থকদের নিয়ে ছোট ছোট সভা করছেন। যে সভার মাধ্যমে রাজনৈতিক দলগুলো তাদের সমর্থকদের উপস্থিতি জানান দিচ্ছে। কোন দলকে সাধারণ মানুষ বেশি সমর্থন  করছে তা এই ছোট ছোট সভার মাধ্যমে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল গুলি একে অপরকে জানানোর চেষ্টা করছে। এই ছোট ছোট সভার মাধ্যমে সমস্ত রাজনৈতিক দল গুলির মধ্যে চলছে দলীয় প্রচার। ভোটের আগেই কোন দলের সমর্থক কোন সভাতে বেশি তা বোঝানোর লড়াই। এই ছোট ছোট দলীয়সভা গুলিতে দেখা যাচ্ছে , কোনও সভায় প্রচুর লোকের উপস্থিতি যা জনসমুদ্রের তৈরি করছে, আবার কোনও সভায় একদমই লোক নেই বললেই চলে। মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার আগে রাজনৈতিক দলগুলি রোড শো, বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের বিভিন্ন ভাবে ভোট প্রচার চালাচ্ছে । বাদ যায়নি বসন্ত উতসবকে সামনে রেখে প্রচারও৷

সমর্থকদের নিয়ে রঙের খেলায় মেতেছেন প্রার্থীরা৷ বীরভূমের জেলা শাসক জানিয়েছেন যে, সিউড়ি জেলা শাসকের দফতর, বোলপুর এস ডি ও অফিস ও রামপুরহাট এস ডি ও অফিসে মনোনয়ন প্রক্রিয়া চলবে। সিউড়ি জেলাশাসকের দফতরে মনোনয়ন দাখিল করবেন সিউড়ি, সাইথিয়া, ময়ূরেশ্বর ও দুবরাজপুর বিধানসভার প্রার্থীরা। অন্য দিকে বোলপুরে মনোনয়ন দখিল করবেন বোলপুর, নানুর ও লাভপুরের বিধানসভা ভোটের প্রার্থীরা। বোলপুরে মনোনয়ন দাখিল করবেন রামপুরহাট,নলহাটি ও মুরারই বিধান সভার প্রার্থী রা। ৩১ শে মার্চ থেকে বীরভূম জেলায় মনোনয়ন প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে। নাকা তল্লাশির ওপর এবার বিশেষ জোর দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

Published by:Pooja Basu
First published: