দক্ষিণবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভর সন্ধ্যায় পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লাকে গুলি, হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মৃত্যু

ভর সন্ধ্যায় পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লাকে গুলি, হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মৃত্যু

রবিবার সন্ধ্যে সাড়ে আটটা নাগাদ অর্জুন সিংয়ের ওই কাছের নেতা টিটাগড় থানার কাছে দাঁড়িয়ে ছিলেন। সেই সময়ে মোটর সাইকেলে করে এসে কয়েকজনক তাঁকে গুলি করে বলে অভিযোগ।

  • Share this:

#‌ব্যারাকপুর:‌ ব্যারাকপুরে বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লাকে প্রকাশ্যে ভর সন্ধ্যায় বিটি রোডের উপর গুলি করে খুন করল দুষ্কৃতীরা। রবিবার সন্ধ্যে সাড়ে আটটা নাগাদ অর্জুন সিং ঘনিষ্ঠ নেতা টিটাগড় থানার কাছে দাঁড়িয়ে ছিলেন। সেই সময়ে মোটর সাইকেলে করে এসে কয়েকজনক তাঁকে পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি করে বলে অভিযোগ। সেই সময় তাঁর এক সঙ্গীও গুলিবিদ্ধ হন। এরপর তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হলেও রাস্তাতেই  মৃত্যু হয় মণীশের।

এ দিন চার–পাঁচ রাউন্ড গুলি চালানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বাইক চালক এবং সওয়ারিদের মুখ হেলমেটে ঢাকা ছিল। খুব কাছ থেকে বাইক আরোহী দুষ্কৃতীরা গুলি করে মণীশকে লক্ষ্য করে। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, একাধিক গুলি লাগে মণীশের শরীরে। ঘটনাস্থলেই রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়েন তিনি। তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে গুলি লাগে তাঁর সঙ্গীর। থানার খুব কাছেই এই ঘটনা ঘটে যাওয়ায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বিজেপি নেতৃত্ব। কৈলাশ বিজয়বর্গীয় দাবি করেছেন, ‌এই ঘটনা তৃণমূলের গুণ্ডারাই ঘটিয়েছে। তাঁদের হাতে দলের এক কর্মঠ সৈনিকের মৃত্যু হয়েছে। এতে পুলিশও জড়িত থাকতে পারে বলে তাঁর অভিযোগ। ঘটনার সিবিআই তদন্ত দাবি করেছেন বিজয়বর্গীয়। যদিও ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিজেপির অভিযোগ অবশ্য অস্বীকার করেছে তৃণমূল। তৃণমূলের বিধায়ক পার্থ ভৌমিক জানিয়েছেন, ব্যারকপুরে হিংসার রাজনীতির আমদানি করেছেন বিজেপি নেতা অর্জুন সিং। এক্ষেত্রে তৃণমূলের কোনও ভূমিকা নেই। আর এমন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নিয়ে রাজ্যের সামগ্রিক আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি বিচার করার কোনও মানে হয় না বলেই জানিয়েছেন পার্থ ভৌমিক।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: October 5, 2020, 12:07 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर