corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাজারে চাল, ডাল, তেলের দাম বেশি কেন ? টাস্কফোর্সকে অভিযানের নির্দেশ জেলা প্রশাসনের

বাজারে চাল, ডাল, তেলের দাম বেশি কেন ? টাস্কফোর্সকে অভিযানের নির্দেশ জেলা প্রশাসনের

খুচরো বাজারে দাম বেশি নেওয়া হচ্ছে নাকি পাইকারি বাজার থেকেই বাড়ছে দাম তা খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন

  • Share this:

#বর্ধমান: বাজারে চাল, ডাল, আলু, তেলের দাম কেন বেশি তা জানতে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় গঠিত বিশেষ টাস্কফোর্সকে নির্দেশ দিল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকেই নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম ক্রমশঃ বাড়তে শুরু করেছে। চাল উৎপাদনে দেশের অগ্রগণ্য জেলা পূর্ব বর্ধমান। সেই জেলাতেও চালের দাম কেজি প্রতি ১০ থেকে ১৫ টাকা বেড়ে যাওয়ায় উদ্বিগ্ন জেলা প্রশাসন। পাল্লা দিয়ে দাম বেড়েছে আটা, সরষের তেল, সব ধরণের ডালের। আলুর দাম ১৮ টাকা থেকে বেড়ে ২৫ টাকায় চলে গিয়েছে। এই দাম বাড়ার কারণ কী? খুচরো বাজারে দাম বেশি নেওয়া হচ্ছে নাকি পাইকারি বাজার থেকেই বাড়ছে দাম তা খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

লকডাউন শুরু হবার পর থেকেই বেড়েছে চালের দাম। ৩৮ টাকা কেজি চাল এখন বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকায়। কেজি প্রতি ১০ টাকা করে বেড়েছে আটার। সব রকম ডালের দাম বেড়েছে কেজিতে ১৫ টাকা করে। ১০০ টাকার সরষের তেল এখন কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১২৫ টাকায়। আলুর দাম ১৮ টাকা থেকে ২৫ টাকায় পৌঁছে গিয়েছে।

কালোবাজারি নিয়ন্ত্রণে জেলা প্রশাসন টাক্সফোর্স গড়লেও নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর দাম বাড়তেই থাকায় ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা। তাঁরা বলছেন, লকডাউনের জেরে কাজ বন্ধ। উপার্জন বন্ধ। তার ওপর বেশি দামে জিনিসপত্র কিনতে হচ্ছে। অবিলম্বে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিক জেলা প্রশাসন।

এব্যাপারে পূর্ব বর্ধমানের জেলা শাসক বিজয় ভারতী জানান,বেশ কিছু জায়গা থেকে জিনিসপত্রের দাম বেশি নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে টাস্কফোর্সকে নজরদারি চালানোর জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাইকারি ও খুচরা বাজারে সাতদিন ধরে নজরদারি চালাতে বলা হয়েছে। কোথাও কালোবাজারি হচ্ছে বুঝতে পারলেই সেই ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে আইন মোতাবেক কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আজ থেকেই টাস্কফোর্সের সদস্যরা জেলাজুড়ে অভিযানে নামবেন। কোথাও খাদ্য সামগ্রী গুদামজাত করে বাজারে কৃত্রিম অভাব তৈরি করা হলেও কড়া ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন।

শরদিন্দু ঘোষ

First published: April 29, 2020, 6:12 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर