শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনে অংশ নেওয়ার চেষ্টার অপরাধে শিক্ষককে হুমকির অভিযোগ তৃনমুলের প্রাক্তন কাউন্সিলারের বিরুদ্ধে

স্কুলের পরিচালন সমিতির শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনে অংশ নেওয়ার চেষ্টা করার অপরাধে বাঁকুড়া খ্রিষ্টান কলেজিয়েট স্কুলের একজন শিক্ষককে হুমকি

Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Mar 08, 2017 06:02 PM IST
শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনে অংশ নেওয়ার চেষ্টার অপরাধে শিক্ষককে হুমকির অভিযোগ তৃনমুলের প্রাক্তন কাউন্সিলারের বিরুদ্ধে
Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Mar 08, 2017 06:02 PM IST

#বাঁকুড়া: স্কুলের পরিচালন সমিতির শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনে অংশ নেওয়ার চেষ্টা করার অপরাধে বাঁকুড়া খ্রিষ্টান কলেজিয়েট স্কুলের একজন শিক্ষককে হুমকি , গালি গালাজ ও অপহরনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল বাঁকুড়া পুরসভার শাসক দলের প্রাক্তন এক কাউন্সিলারের বিরুদ্ধে । এই ঘটনায় রীতিমত আতঙ্কিত ওই শিক্ষক আজ বাঁকুড়া বাঁকুড়া সদর থানার দ্বারস্থ হয়ে প্রাক্তন ওই তৃনমুল কাউন্সিলার দেবদাস দাসের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন । অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা অবশ্য তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ।

ঘটনার সূত্রপাত ২০১৬ সালের নভেম্বর মাসে । বাঁকুড়া খ্রিষ্টান কলেজিয়েট স্কুলের সহ শিক্ষক উদয় মহাপাত্র নিজের স্কুলের পরিচালন সমিতির শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন । অভিযোগ ঘটনার কথা জানাজানি হতেই তৃণমূলের প্রাক্তন ওই কাউন্সিলার একাধিকবার ওই শিক্ষককে শাসানি দেন বলে অভিযোগ । বেশ কিছু লোক ওই শিক্ষকের বাড়িতে চড়াও হয়ে ব্যপক হুমকি দিয়ে যায় বলেও অভিযোগ । শিক্ষকের দাবি এই ঘটনায় রীতিমত ভয় পেয়ে গিয়ে তিনি আর প্রার্থী হওয়ার সাহস দেখাতে পারেননি । প্রার্থী না হলেও নিস্তার পাননি ওই শিক্ষক।

অভিযোগ এখনও সেই ঘটনার রেশ ধরে মাঝে মধ্যেই তাঁকে টেলিফোনে হুমকি দেওয়া হয় । এছাড়াও ওই শিক্ষকের অভিযোগ গতকাল রাতে বাঁকুড়ার মাচানতলা এলাকায় চায়ের দোকানে বসে গল্প করার সময় দেবদাস দাস এর নেতৃত্বে ২০ -২৫ জন এসে তাঁকে গালিগালাজ করে অপহরনের চেষ্টা করেন । শিক্ষকের দাবি তাঁকে খুন করার কারণেই অপহরনের চেষ্টা হয়ে থাকতে পারে । সৌভাগ্যক্রমে ঘটনাস্থলে একজন পুলিশ আধিকারিক এসে যাওয়ায় ওই শিক্ষক বেঁচে যান । এরপরই আজ বাঁকুড়া সদর থানার দ্বারস্থ হয়ে গোটা ঘটনার কথা লিখিত ভাবে জানান ওই শিক্ষক । যদিও তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগই অস্বীকার করেছেন তৃণমূলের প্রাক্তন কাউন্সিলার দেবদাস দাস । তাঁর বক্তব্য স্কুলের পরিচালন সমিতির নির্বাচনের সঙ্গে তাঁর কোনও সম্পর্কই নেই । স্থানীয় কংগ্রেস বিধায়ক শম্পা দরিপার স্বামীর সঙ্গে ওই শিক্ষকের ভালো সম্পর্ক । সেই রাজনৈতিক কারণেই আমাকে ফাঁসানোর চক্রান্ত করা হয়েছে ।

First published: 06:02:08 PM Mar 08, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर