ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের সঙ্গে কর্মীদের হাতাহাতির জের, আন্দামানে বদলি করা হল ব্যাঙ্ক ম্যানেজারকে

নিজস্ব চিত্র

ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের সঙ্গে কর্মীদের হাতাহাতির জের। নজিরবিহীন শাস্তির সিদ্ধান্ত ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের। শোকজ করা হল তমলুক রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের ১১ জন কর্মীকে।

  • Share this:

    #তমলুক: ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের সঙ্গে কর্মীদের হাতাহাতির জের। নজিরবিহীন শাস্তির সিদ্ধান্ত ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের। শোকজ করা হল তমলুক রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের ১১ জন কর্মীকে। ছ’মাসের জন্য বন্ধ করা হল বেতন বৃদ্ধিও। আন্দামানে বদলি করা হয়েছে ব্যাঙ্ক ম্যানেজারকে। ছুটি চাওয়া নিয়ে বিবাদের জেরে গত বছরের অক্টোবরে ম্যানেজারের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন এক ব্যাঙ্ককর্মী। আন্দোলনে নামেন অন্য ব্যাঙ্কর্মীরা। মারামারির সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ্যে আসার পরই ব্যবস্থা।

    সামান্য ছুটি নিয়ে বচসা। বচসা গড়ায় হাতাহাতিতে। ২০১৭-র চব্বিশে অক্টোবর ছুটি চাওয়াকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে তমলুক রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন এসবিআই ব্রাঞ্চ। অভিযোগ, একদিনের জন্য ছুটির আবেদন করতে যান ব্যাঙ্ককর্মী সমীর দাস। বিরক্ত হয়ে ওই আবেদনপত্র ছিঁড়ে ফেলেন ম্যানেজার বরুণেশ নন্দন সিং। সমীর দাস প্রতিবাদ করলে চেয়ার থেকে উঠে তাঁকে মারতে শুরু করেন ম্যানেজার। সিসিটিভিতে ধরা পড়ে হাতাহাতির সেই ছবি। ঘটনার প্রতিবাদে কালো ব্যাজ পরে ব্যাঙ্কে কাজ করেন কর্মীরা। ম্যানেজারের শাস্তির দাবিতে ব্যাঙ্কের বাইরে স্লোগান দিয়ে বিক্ষোভ দেখান কর্মীরা।

    ঘটনাস্থলে আসেন ব্যাঙ্কর উচ্চপদস্থ কর্তারা। প্রশ্ন ওঠে, ব্যাঙ্কের ভিতরের ফুটেজ কিভাবে বাইরে পৌঁছল ? এরপরই আরামবাগে বদলি করা হয় ম্যানেজারকে। শোকজনও করা হয় তাঁকে। উত্তরে সন্তুষ্ট না হয়ে এবার আন্দামানে বদলি করা হল বরুণেশ নন্দন সিংকে। অন্যদিকে ব্যাঙ্কের ফুটেজ প্রকাশ্যে আনা, মারামারি ও বিক্ষোভ দেখানোর ঘটনায় সমীর দাস-সহ এগারজন কর্মীকে শোকজ করেছে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ। নজিরবিহীনভাবে ছমাসের জন্য আটকে দেওয়া হয়েছে তাঁদের ইনক্রিমেন্টও। এই ঘটনায় কর্মীদের কোনও সংগঠন এগিয়ে না আসায় চাপা ক্ষোভ তৈরি হয়েছে তমলুকের এসবিআই শাখার কর্মীদের মধ্যে । পরিষেবা নিয়ে চিন্তায় গ্রাহকরাও।

    First published: