Home /News /south-bengal /
Bangla news : এক একটি পেল্লায় মিষ্টিতে পেট ভরে ১০ জনের! দামও আকাশছোঁয়া, কোথায় জানেন?

Bangla news : এক একটি পেল্লায় মিষ্টিতে পেট ভরে ১০ জনের! দামও আকাশছোঁয়া, কোথায় জানেন?

এক একটি পেল্লায় মিষ্টিতে পেট ভরে ১০ জনের

এক একটি পেল্লায় মিষ্টিতে পেট ভরে ১০ জনের

Bangla news : এক একটা মিষ্টি এতটাই বড় দুই হাতে ধরেও তোলা দায়। একটা মিষ্টি কিনলে পরিবারে থাকা দশ জনের পেট ভর্তি হয়ে যায়।

  • Share this:

#বর্ধমান : এক একটি মিষ্টির (Sweet)দাম এক হাজার টাকা। এক একটা মিষ্টি এতটাই বড় দুই হাতে ধরেও তোলা দায়। একটা মিষ্টি কিনলে পরিবারে থাকা দশ জনের পেট ভর্তি হয়ে যায়। এমনই মিষ্টির দেখা মিলছে পূর্ব বর্ধমানের কালনার নান্দাই পঞ্চায়েতের হাতিপোতা গ্রামে। দেবদাস স্মৃতি মেলায়। অমর কথাশিল্পী শরৎ চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের দেবদাস উপন্যাসের সেই হাতিপোতা গ্রাম। এই গ্রামেই বিয়ে হয়েছিল পারোর। তাঁকে শেষ দেখা দেখতে এসে এই গ্রামেই শেষ নিঃশ্বাস ফেলেছিল দেবদাস। শরৎচন্দ্রের সেই দেবদাসের স্মৃতি রক্ষায় জন্য প্রতি বছর মেলা বসে। সেই মেলার অন্যতম আকর্ষণ পেল্লায় সাইজের মিষ্টি।

হাতিপোতা গ্রাম। শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় উপন্যাসে রয়েছে এই গ্রামের উল্লেখ। এই গ্রামে কেটেছিল দেবদাসের শেষ জীবন। সেই শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের দেবদাসকে ঘিরে এই গ্রামে ২২ বছর ধরে চলে আসছে মেলা। দেবদাস শেষ বয়সে এই গ্রামেরই বটতলাতে এসে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে। এই গ্রামের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে রয়েছে দেবদাসের নাম। সাতশোটি পরিবারে হাজার দুয়েক মানুষ থাকে এই গ্রামে। এবার এই গ্রামে মেলার উদ্বোধন করেন প্রাণী সম্পদ উন্নয়ন দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও অভিনেত্রী ইন্দ্রানী হালদার। এই মেলায় একমাত্র মিষ্টির (Sweet) টানেই আসেন অনেকে। অনেকে আসেন দূর দূরান্ত থেকে। মিষ্টি খেয়ে মিষ্টি কিনে বাড়ি ফেরেন তাঁরা।

আরও পড়ুন- সাপের কামড় খেয়ে সাপকে নিয়েই হাসপাতালে ছুটলেন ব্যক্তি! দেখুন ভিডিও

আরও পড়ুন- নেতাজিনগরের বাড়িতে দাউদাউ করে আগুন! মৃত্যু একজনের

এই মেলার মূল আকর্ষণ হাজার টাকা দামের মিষ্টি (Sweet)। যার যেমন আকার তার তেমন দাম। রয়েছে দুশো পাঁচশো টাকার দামি মিষ্টিও। নজর কাড়া আয়তন এক একটির। কোনও টা ৯ ইঞ্চি লম্বা, ৩ ইঞ্চি মোটা। কোনটা আবার লম্বায় দু ফুটেরও বেশি। এক একটির ওজন প্রায় ২ থেকে ৩ কেজি। একটা বড় মিষ্টি কিনে পরিবারের সকলে ভাগ করে খাওয়াটাই এই মেলার আনন্দ। বিক্রেতারা জানালেন, অন্যান্য বছর ২০০০ টাকা দামের মিষ্টিও তৈরি হয়। তবে এবার করোনার কারণে ভিড় না হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। তাই এবার সর্বোচ্চ এক হাজার টাকা দামের মিষ্টি রয়েছে। এই মেলার নাম মিষ্টি মেলা বললেও ভুল হয় না।

শরদিন্দু ঘোষ 

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Bardhaman, East Bardhaman

পরবর্তী খবর