চতুর্থ দফার নির্বাচনের আগে বন্ধ হল বাংলা-ঝাড়খণ্ড সীমানা, ৭০৯ টি বুথকে স্পর্শকাতর হিসেবে চিহ্নিত

চতুর্থ দফার নির্বাচনের আগে বন্ধ হল বাংলা-ঝাড়খণ্ড সীমানা, ৭০৯ টি বুথকে স্পর্শকাতর হিসেবে চিহ্নিত
  • Share this:

#বীরভূম: সোমবার রাজ্যে চতুর্থ দফার লোকসভা নির্বাচন ৷ সেই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা আরও জোরদার করছে নির্বাচন কমিশন ৷ মোট ৮টি লোকসভা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হতে চলেছে ৷ নিরাপত্তা ব্যবস্থার যাতে কোনওরকম ঘাটতি না থাকে, সেটি খতিয়ে দেখছে কমিশন ৷ আগামী ৭২ ঘণ্টার জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বাংলা-ঝাড়খণ্ড সীমান্ত ৷ ১৬ টি নাকা চেকপোস্ট বসানো হচ্ছে ৷ ৭০৯ টি বুথকে স্পর্শকাতর হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে ৷ এরমধ্যে ৯৯ শতাংশ বুথেই থাকছে কেন্দ্রীয় বাহিনী ৷

চতুর্থ দফায় যে আটটি কেন্দ্রে নির্বাচন হতে চলেছে ৷ সেই লোকসভা কেন্দ্রের বর্তমান পরিস্থিতি ঠিক কি ? সেই বিষয়টি নিয়ে গত বৃহস্পতিবার রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক এবং অন্য পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে নিয়ে ভিডিও কনফারেন্স করেন উপ-নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন ৷ ২৯ এপ্রিল চতুর্থ দফার নির্বাচনে ভোট হবে বোলপুর ও বীরভূম কেন্দ্রে ৷ বোলপুর কেন্দ্রে মোট ভোটার সংখ্যা ১৭,০০,০৩০ জন ও বীরভূম কেন্দ্রে মোট ভোটার ১৬,৯৪,৪২২ জন ৷ দুই কেন্দ্রে ২২৫৭ টি জায়গায় ৩০২১ টি বুথে ভোট গ্রহণ হবে ৷ বোলপুর কেন্দ্রের ২৫১টি বুথ ও বীরভূম কেন্দ্রের ৪৫৮টি বুথকে স্পর্শকাতর হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে ৷ শুধুমাত্র এই দুই কেন্দ্রে সুষ্ঠভাবে ভোটপদ্ধতি সম্পন্ন করার জন্য ১২৮ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হবে ৷ এরমধ্যে ৯৯ শতাংশ বুথেই থাকবে কেন্দ্রীয় বাহিনী ৷ সোমবার সকাল থেকে আগামী ৭২ ঘন্টা দুই কেন্দ্রের ৪২ জায়গায় নাকা চেকিং চলবে ৷ তারমধ্য ১৬ টি নাকা চেকপোস্ট থাকছে পশ্চিমবঙ্গ ও ঝাড়খণ্ড সীমান্তে ৷

নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, সকাল ৭ টা থেকে সন্ধে ৬ টা পর্যন্ত চলবে ভোট গ্রহণ ৷ ৬টা বেজে ১৫ মিনিট থেকে শুরু হবে মক পোল ৷ বোলপুর মহকুমা শাসকের দফতর ও জেলা শাসকের দফতরে দু’টি কন্ট্রোল রুম থাকছে। এছাড়া রাজ্য পুলিশ, ভিডিওগ্রাফি, সিসিটিভি ক্যামেরা, মাইক্রো অবজারভারও থাকছে। মাইক্রো অবজারভারদের কাছেও থাকছে ইন্টারনেট যুক্ত চিপ ক্যামেরা ৷ যার মাধ্যমে নির্বাচনী চলাকালীন সমস্ত বিষয়টিই কন্ট্রোল রুম থেকে নজরদারি চালানো যাবে ৷

First published: 01:46:24 PM Apr 28, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर