দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

জিতেন্দ্রকে মানতে পারবেন না, জানালেন বাবুল! তৃণমূল নেতাদের নিয়ে বিজেপি-র অন্দরেও ক্ষোভ

জিতেন্দ্রকে মানতে পারবেন না, জানালেন বাবুল! তৃণমূল নেতাদের নিয়ে বিজেপি-র অন্দরেও ক্ষোভ
জিতেন্দ্রের বিজেপি যোগে আপত্তি বাবুলের৷
  • Share this:

#আসানসোল: জিতেন্দ্র তিওয়ারি বিজেপি-তে এলে তিনি মানতে পারবেন না৷ ফেসবুকে বার্তা দিয়ে তা স্পষ্ট করে দিলেন আসানসোলের সাংসদ এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়৷ আসানসোলের মানুষের উদ্দেশে করা ফেসবুকের ভিডিও পোস্টে বাবুল আরও দাবি করেছেন, জিতেন্দ্র তিওয়ারির সঙ্গে কোনও গোপন সমঝোতার পথে তিনি হাঁটেননি৷

রাজ্য সরকারের কাজকর্ম নিয়ে প্রশ্ন তুলে চিঠি দেওয়ার পর শেষ পর্যন্ত বৃহস্পতিবারই আসানসোলের পুর প্রশাসক এবং জেলা তৃণমূলের সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি৷ শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে তিনিও বিজেপি-তে যোগদান করবেন বলে খবর রটে যায়৷ এমন কি বাবুলের সঙ্গে জিতেন্দ্রর সমঝোতা হয়েছে বলেও কোনও কোনও মহল থেকে দাবি করা হয়৷

কিন্তু জিতেন্দ্র তৃণমূল ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই বাবুল জানিয়েছিলেন, যাঁরা এতদিন আসানসোলের বিজেপি কর্মীদের উপরে অত্যাচার করেছেন, যাঁরা কয়লা- বালির অবৈধ লেনদেনের সঙ্গে যুক্ত, তাঁরা বিজেপি-তে এলে তিনি মন থেকে মেনে নিতে পারবেন না৷ ফেসবুকে ভিডিও পোস্ট করে সেই বার্তাই জোরাল ভাবে দিয়েছেন বাবুল৷ আসানসোলের বিজেপি কর্মী- সমর্থকদের উদ্দেশে বাবুল বলেছেন, 'আপনাদের সঙ্গে আমি বিশ্বাসঘাতকতা করতে পারব না৷'

ফেসবুক বার্তায় বাবুল বলেন, 'আসানসোলের অনেক তৃণমূল নেতা বিশেষ জিতেন্দ্র তিওয়ারির ইস্তফার পর এমন একটা খবর ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা হচ্ছে, বাবুল সুপ্রিয়র সঙ্গে এই নেতাদের গোপন সমঝোতা হয়েছে৷ আমার দলের কেন্দ্রীয় নেতারা কী সিদ্ধান্ত নেবেন তাতে হস্তক্ষেপের অধিকার আমার নেই৷ আসানসোল-দুর্গাপুরের যে নেতারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে এতদিন বিজেপি কর্মীদের উপরে অত্যাচার করতেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি তাঁদের মধ্যে অন্যতম৷ আসানসোলের মানুষকে আমি কথা দিয়েছিলাম, তৃণমূলের যে নেতারা অবৈধ কয়লা, লোহা, বালি পাচারের সঙ্গে যুক্ত তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷ গত চার পাঁচ বছর ধরে আমি যে তথ্য সংগ্রহ করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে দিয়েছিলাম, তার ভিত্তিতে অধিকাংশ অভিযুক্তই ধরা পড়েছে, বাকি তৃণমূল নেতারা ধরা পড়ার অপেক্ষা রয়েছেন৷ আমাদের যে কর্মীরা এতদিন এত কষ্ট করেছেন, তাঁদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করতে পারব না৷ অন্তত আসানসোল দুর্গাপুরের এই তৃণমূল নেতাদের বিজেপি-তে যোগদান আমি মেনে নিতে পারব না৷'

বাবুলের আরও দাবি, জিতেন্দ্রর বিজেপি-তে যোগদানের সম্ভাবনা তৈরি হতেই তাঁকে আসানসোল- দুর্গাপুরের হাজার হাজার বিজেপি কর্মী নিজেদের ক্ষোভ জানিয়ে বার্তা পাঠিয়েছেন৷ কিন্তু এ ক্ষেত্রে তাঁর যে কোনও ভূমিকা নেই, সেটাই স্পষ্ট করে দিয়েছেন বাবুল৷ আসানসোলের সাংসদ জানিয়েছেন, নিজের আপত্তির কথা তিনি কেন্দ্রীয় নেতাদের জানাবেন৷ কিন্তু কেন্দ্রীয় নেতারা যে সিদ্ধান্ত নেবেন, তা যে তিনি মানতে বাধ্য, সেটাও কার্যত স্পষ্ট করে দিয়েছেন বাবুল৷

তবে শুধু আসানসোল নয়, বাঁকুড়াতেও তৃণমূল থেকে আসা নেতাদের যোগদান নিয়ে বিজেপি কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে৷ বৃহস্পতিবারই বাঁকুড়ায় তৃণমূলের সহ-সভাপতি শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে তৃণমূল ছেড়ে তিনি বিজেপি-তে যোগ দেবেন৷ তার পরই শ্যামাপ্রসাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বিজেপি কর্মীরা৷ তাঁদের সাফ কথা, শ্যামাপ্রসাদকে বিজেপি-তে মেনে নেওয়া হবে না৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: December 18, 2020, 8:38 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर