অটো-টোটো চালকদের মধ্যে গণ্ডগোলের জেরে রণক্ষেত্র সোনারপুর

অটো ও টোটো চালকদের মধ্যে গণ্ডগোলের জেরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল সোনারপুর। পঁচিশ-তিরিশটি টোটো ভাঙচুরের অভিযোগ অটোচালকদের বিরুদ্ধে।

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 02, 2017 09:28 AM IST
অটো-টোটো চালকদের মধ্যে গণ্ডগোলের জেরে রণক্ষেত্র সোনারপুর
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 02, 2017 09:28 AM IST

#সোনারপুর: অটো ও টোটো চালকদের মধ্যে গণ্ডগোলের জেরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল সোনারপুর। পঁচিশ-তিরিশটি টোটো ভাঙচুরের অভিযোগ অটোচালকদের বিরুদ্ধে। কয়েকজন টোটোচালককে মারধরের অভিযোগও উঠেছে। যদিও যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অটোচালকরা। গণ্ডগোলের জেরে বছরের প্রথম দিনেই সমস্যায় পড়েন যাত্রীরা।

বেআইনিভাবে চালানো হচ্ছিল টোটো। প্রশাসনে অভিযোগ জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। বাধ্য হয়ে আন্দোলনে নামেন সোনারপুরের অটোচালকরা। এরপরই তাঁদের বিরুদ্ধে বহু টোটোয় ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠল। বছরের প্রথম দিনেই রণক্ষেত্রের চেহারা নিল সোনারপুর। প্রায় পঁচিশ-তিরিশটি টোটো ভাঙচুরের অভিযোগ উঠল অটোচালকদের বিরুদ্ধে। টোটোচালকদের মারধরে অভিযোগও উঠেছে।

সোনারপুর ফ্লাইওভারের নিচ থেকে বিভিন্ন রুটে অটো ও টোটো চলাচল করে। শুধু বেআইনিভাবে নয়, টোটো চলায় অটোর যাত্রী কমে আসছিল বলেও অভিযোগ অটোচালকদের। যদিও টোটোয় ভাঙচুরের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তাঁরা।

ভাঙচুরের পর সোনারপুর থানায় বিক্ষোভ দেখান টোটোচালকরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। বেশ কয়েকজন অটোচালককে আটক করা হয়। গণ্ডগোলের জেরে প্রায় তিন ঘণ্টা বন্ধ থাকে অটো ও টোটো চলাচল।

বারুইপুর-গড়িয়া রোডে গাড়ি চালানো নিয়ে পাঁচই ডিসেম্বর রাজপুরে অটো ও টোটো চালকদের মধ্যে গণ্ডগোল হয়। এক মাসের মধ্যেই একই ইস্যুতে ফের গণ্ডগোলের ঘটনায় সমস্যায় পড়েছে সাধারণ মানুষই।

First published: 09:28:45 AM Jan 02, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर