বাতিল যন্ত্রাংশ দিয়েই আস্ত গাড়ি বানালেন দুই ছাত্র

বাতিল যন্ত্রাংশ দিয়েই আস্ত গাড়ি বানালেন দুই ছাত্র

ফেলে দেওয়া জিনিস দিয়ে নতুন গাড়ি? অবাক লাগলেও সত্যি৷ এমনই অসাধ্যসাধন করেছেন আসানসোলের দুই ছাত্র। বাতিল অথবা অকেজো যন্ত্রাংশ দিয়ে আস্ত একটা গাড়ি বানিয়ে ফেলেছেন তাঁরা৷

  • Share this:

#আসানসোল: ফেলে দেওয়া জিনিস দিয়ে নতুন গাড়ি? অবাক লাগলেও সত্যি৷ এমনই অসাধ্যসাধন করেছেন আসানসোলের দুই ছাত্র। বাতিল অথবা অকেজো যন্ত্রাংশ দিয়ে আস্ত একটা গাড়ি বানিয়ে ফেলেছেন তাঁরা৷ যা প্রযুক্তির দিক দিয়েও বেশ উন্নত। ইনজিনিয়ারিংয়ের দুই ছাত্রের এই কীর্তিতে রীতিমতো বিস্মিত অধ্যাপকরাও। বাণিজ্যিকভাবে এই গাড়ি বাজারে আনতে চান এই গাড়ির স্রষ্টা দেবজিত আর শুভময়।

যেন ছিল রুমাল আর হয়ে গেল আস্ত একটা বিড়াল। বিকল একটা ইনজিনকে সারিয়ে তার উপর কাঠামো লাগিয়ে তৈরি আস্ত একটা চার চাকার গাড়ি। ম্যাজিক দেখিয়েছেন আসানসোলের দুই ইনজিনিয়ারিং ছাত্র। রাস্তা দিয়ে দিব্যি ছুটছে তাঁদের এই আবিষ্কার।

দুর্গাপুরের একটি ইনজিনিয়ারিং কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র দেবজিত চট্টোপাধ্যায়। ছোট থেকেই একটু অন্যরকম আবিষ্কারের নেশা। নিজের সাইকেল বিক্রি করে কলকাতার মল্লিকবাজার থেকে গাড়ির বিকল ইঞ্জিন কিনেছিলেন দেবজিত। পানাগড়-সহ অন্য জায়গা থেকে কেনেন গাড়ির আরও প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশ। তারপরই শুরু স্বপ্ন জোড়ার কাজ। সঙ্গে যোগ দেন বন্ধু শুভময় কর্মকারও৷

ছাত্রদের দাবি, বাজারে এই গাড়ির দাম হতে পারে আশি থেকে নব্বই হাজার টাকা। অত্যন্ত কম খরচে তৈরি হলেও গাড়ির প্রযুক্তির সঙ্গে কোনও আপস করেননি তাঁরা। সাসপেনশনে পরিবর্তন করে বাড়ানো হয়েছে গাড়ির গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স। যাতে হাম্প বা খানাখন্দে গাড়ি ঠোক্কর না খায়।

এখন ডিজেল দিয়েই চলছে গাড়ি। শুভময়ের দাবি, আগামী দিনে সৌরবিদ্যুত-ই হবে গাড়ির জ্বালানি।

কলেজের একটি প্রজেক্টে এই গাড়ি দেখে তাজ্জব সকলেই। গাড়িটিকে বাজারে আনা কিন্তু সহজ নয়। দেশের অটোমোবাইল রিসার্চ অ্যাসোসিয়েশনের ছাড়পত্র পাওয়ার দিকে এখন তাকিয়ে দুই ছাত্র।

First published: 08:09:47 PM Mar 16, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर