ঠেঙিয়ে পগাড় পার করুন বিজেপিকে, এবারের নির্বাচনে নয়া দাওয়াই অনুব্রতর

ঠেঙিয়ে পগাড় পার করুন বিজেপিকে, এবারের নির্বাচনে নয়া দাওয়াই অনুব্রতর
বর্ধমানের সভায় অনুব্রত মণ্ডল।

তাঁর এই বক্তব্যে কর্মীদের মধ্যে হাততালির ঝড় বয়ে যায়

  • Share this:

#বর্ধমান: এবারে বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের বীরভূম জেলার সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের নয়া দাওয়াই ঠেঙিয়ে পগাড় পার। এক্কেবারে দলীয় মঞ্চ থেকে কর্মীদের উদ্দেশ্যে এই দাওয়াইয়ের কথা ঘোষণা করলেন দাপুটে নেতা অনুব্রত মণ্ডল। বরাবরই তাঁর মন্তব্যকে ঘিরে উত্তাল হয়েছে রাজ্য রাজনীতি। বিতর্ক ছড়িয়েছে তাঁর কথায়।সেই অনুব্রত মন্ডল এদিন পূর্ব বর্ধমান জেলার আউশগ্রামে জনসভা করেন। সেই জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, "একটা কথা বলছি তা আপনারা করতে পারবেন তো? সেই জোর আছে তো?" এরপরই তিনি বলেন, "বিজেপিকে ঠেঙিয়ে পগাড় পার করতে হবে।" তাঁর এই বক্তব্যে কর্মীদের মধ্যে হাততালির ঝড় বয়ে যায়। এদিন সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপির কড়া সমালোচনা করেন এই তৃণমূল নেতা।

কখনও চড়াম চড়াম, কখনও নকুলদানা কিংবা গুড়বাতাসা - বিভিন্ন নির্বাচনের আগে অনুব্রতর দাওয়াই বরাবর রাজ্যজুড়ে শোরগোল ফেলেছে। এবার তৃনমূলের বীরভূম জেলা সভাপতির দাওয়াই বেশ কড়া। এবার তাঁর দাওয়াই ঠেঙিয়ে পগাড় পার। আউশগ্রামের মঞ্চ থেকে তিনি সরাসরি কর্মীদের বিজেপিকে ঠেঙিয়ে পগাড় পার করানোর নির্দেশ দিয়েছেন। তার আগে কর্মীদের কাছ থেকে দাওয়াই ব্যবহারের কথা আদায় করে নিয়েছেন।

নয়া এই দাওয়াইয়ে কি বার্তা দিতে চাইলেন তিনি? অনুব্রত বললেন, গ্রামের ভাষা। মেঠো ভাষা। ছুটতে হবে। পায়ে কোমরে বেদনা হবে। বাকিটা দেখে নিতে হবে ডিকসিনারিতে। তাতেই লেখা আছে সব। আমি ডিকসিনারির বাইরে কোনও কথা বলি না।


অনুব্রতর নয়া দাওয়াইয়ে রাজ্য রাজনীতি উত্তাল হওয়া এখন সময়ের অপেক্ষা বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল পূর্ব বর্ধমান জেলার বিজেপি নেতৃত্বের বক্তব্য, পায়ের তলার মাটি সরে যাওয়ায় ভয় পেয়ে গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস জনগণের রায় তাদের সঙ্গে নেই বুঝতে পেরেই এখন গায়ের জোরে ক্ষমতা দখলের বার্তা দিচ্ছেন অনুব্রত মণ্ডলের মতো নেতারা। তবে তাদের সে উদ্দেশ্য সফল হবে না।

Published by:Arka Deb
First published: