corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘‌যেদিকে তাকাবেন, সব শেষ’‌, বিদ্যাধরীর পাড়ে হাড়োয়া যেন নিশ্চিহ্ন গ্রাম

‘‌যেদিকে তাকাবেন, সব শেষ’‌, বিদ্যাধরীর পাড়ে হাড়োয়া যেন নিশ্চিহ্ন গ্রাম
ধ্বংসস্তুপ হাড়োযা

বিদ্যাধরীর কাদা, দুমড়ে যাওয়া সবুজ আর মরা মাছের গন্ধ মিলিয়ে যেমন আঁশটে একটা পরিবেশ তৈরি হয়েছে হাড়োয়ায়, মৃত্যুর গন্ধ বোধহয় তেমনই!‌

  • Share this:

#‌হাড়োয়া:‌ নদী ফেরত ফুরফুরে হাওয়া গ্রামের পথ দিয়ে বয়ে যাচ্ছে। কী নিরীহ সে। জল মাখা হাওযায় কোথায় সেই ফোঁসফোঁসানি!‌ সেদিনের মতো। সেদিন মানে, গত বুধবার। যেদিন সাগর থেকে উঠে আসা ঝড় দানবের মতো দাপিয়ে বেরিয়েছে সবুজ ঘেরা হাড়োয়া। টান মেরে নিয়ে চলে গেছে গ্রাম সভ্যতার শেষ লজ্জাবস্ত্রটুকু। বেড়াচাঁপা হয়ে হাড়োয়া যাওয়ার পথেই রাস্তার দু’‌ধারে নজরে পড়ে, মুখ থুবড়ে পড়ে আছে গাছ, বিদ্যুতের খুঁটি। যেন কেউ স্টিম রোলার চালিয়েছে। রাস্তা আগলে গাছ এমন ভাবে পড়েছে, যেন মনে হচ্ছে সে তাণ্ডবের ক্ষত চিহ্ন আড়াল করে বলছে, ওদিকে যে ধ্বংসস্তুপ আছে, তা চেয়ে দেখার মতো নয়। তবু, করুণতর দৃশ্য চোখের সামনে আলগা হয় ধীরে ধীরে।

বেঁড়াচাপা মোড়ে কয়েকজন গ্রামবাসীকে প্রশ্ন করতেই তাঁরা উত্তর দিয়ে ওঠেন, ‘‌যেদিকে খুশি চলে যান। সব শেষ হয়ে গিয়েছে। যেদিকে তাকাবেন, সব নিয়ে গেছে আমফান। যেখানে খুশি ছবি তুলুন।’‌

হাড়োয়ায় যেতেই সংবাদমাধ্যমের গাড়িকে ভুল করে ত্রাণের গাড়ি ভেবে ছুটে আসেন অনেকে। কী বা করবেন, জল নেই, খাবার নেই, হা করে ঘরে ক্ষিদের জ্বালায় ঘরে ছটফট করছে বাচ্চারা। দুটো খাবার যদি পাওয়া যায়!‌

‘‌নাহ্‌, এ টিভির লোক’‌

হতাশ হয়ে ফিরে যান গ্রামবাসীরা। এই গ্রামে যেদিকেই তাকানো যায়, ভেসে আসবে ফুঁপিয়ে কান্নার শব্দ। গ্রামবাসীরা বলছেন, ‘‌আয়লা, বুলবুল, সব দেখেছি আমরা, কিন্তু এমন ঝড় দেখিনি। বাড়ি ঘর গিয়েছে। প্রাণ যে যায়নি, সৌভাগ্য।’‌ কেউ কেউ আবার আস্তানা তুলছেন নতুন করে। বেশিরভাগ বাড়ির ছাদ উড়ে নানা গিয়েছে, টালি ভেঙে চৌচির হয়েছে। মারণ হওয়ায় ঝাপটায় উড়ে গিয়েছে কাঁচা বাড়ির ছাদ। সেগুলোই নতুন করে গড়ে লড়াই করতে শুরু করেছেন হাড়োয়ার বাসিন্দারা। যতই গ্রামের ভিতরের দিকে ঢোকা যাচ্ছে, ততই স্পষ্ট হচ্ছে, সেদিন ঘণ্টা তিনেকের জন্য কেমন দক্ষযজ্ঞ বাঁধিয়েছিল আমফান।

নদীর বাঁধ ভাঙেনি। তবে ঝড়ের তাণ্ডবে সেদিন মৃত্যু হয়েছে মাছের। মরা মাছ ভাসছে জলে, পচে গন্ধ বেরিয়ে গিয়েছে। গ্রাম জুড়ে সেই গন্ধ ভুরভুর করছে। মৃত্যু গন্ধ কেমন হয়, মানব হৃদয় জানে না। বিদ্যাধরীর কাদা, দুমড়ে যাওয়া সবুজ আর মরা মাছের গন্ধ মিলিয়ে যেমন আঁশটে একটা পরিবেশ তৈরি হয়েছে হাড়োয়ায়, মৃত্যুর গন্ধ বোধহয় তেমনই!‌

সোমরাজ বন্দ্য়োপাধ্য়ায়

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: May 26, 2020, 4:28 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर