corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা আবহেই সরকারি হাসপাতালে সফল হল বিরল পাকস্থলী ক্যান্সারের অস্ত্রোপচার !

করোনা আবহেই সরকারি হাসপাতালে সফল হল বিরল পাকস্থলী ক্যান্সারের অস্ত্রোপচার !

করোনা পরীক্ষার নেগেটিভ রিপোর্ট আসার অপেক্ষায় কিছুটা দেরি হয় প্রক্রিয়ার৷ তবে শনিবার হল সেই বিরল অস্ত্রোপচার।

  • Share this:

#রামপুরহাট: কিছুদিন আগেই রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রোগীর অস্ত্রপচার করতে গিয়েই করোনায় আক্রান্ত হন এক চিকিৎসক ও নার্স৷ বীরভূম জেলার প্রথম চিকিৎসক করোনা আক্রান্ত হওয়া নিয়ে আতঙ্কের ছায়া ছিল হাসপাতাল জুড়ে। সেই করোনা আবহেই বিরল অস্ত্রপচার হল রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেই। পাকস্থলীর ক্যান্সারের বিরল অস্ত্রপচারে সফল হলেন চিকিৎসকরা৷

কয়েক মাস থেকে পেটের সমস্যা নিয়ে ভুগছিলেন নলহাটি থানার হরিদাসপুর গ্রামপঞ্চায়েতের সিংডহরি গ্রামের বাসিন্দা ৬০ বছর বয়সী ভবানী মাল৷ পেটের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি৷ কোন খাবার খেলেই সেটা বমি হয়ে যাচ্ছিল৷ কয়েকমাস থেকেই বিভিন্ন জায়গাতে চিকিৎসা করিয়েছেন কিন্তু অর্থের অভাবে সে ভাবে তথাকথিত ভাল জায়গাতে দেখাতে পারেনি পরিবার৷ করোনা আবহে লকডাউনের সময় আরও সমস্যায় পড়েছিলেন রোগীর পরিবার৷ সেভাবে চিকিৎসাও হচ্ছিল না ।শেষমেশ রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গত ১৫ আগস্ট এই অস্ত্রোপচার হবার কথা ছিল৷ করোনা পরীক্ষার নেগেটিভ রিপোর্ট আসার অপেক্ষায় কিছুটা দেরি হয় প্রক্রিয়ার৷ তবে শনিবার হল সেই বিরল অস্ত্রোপচার।

সার্জিক্যাল বিভাগের চিকিৎসক সব্যসাচী চক্রবর্তী, পুলক দত্ত ও চিকিৎসক মণি শংকর নাথের নেতৃত্বে হয় এই অস্ত্রপচার। চিকিৎসকদের দাবি পাকস্থলীর মধ্যে ক্যান্সার সব থেকে জটিল রোগ। ৭০ শতাংশ পাকস্থলী কেটে বাদ দেন চিকিৎসকরা৷ প্রায় ২ ঘন্টা ১০ মিনিট ধরে চলে এই অস্ত্রোপচার। খাদ্যনালীতে একটি অঙ্গস্থাপন করা হয়৷ তবে তা সফল হয় ।রোগী ক্রিটিকাল কেয়ার ইউনিট ভর্তি রয়েছেন৷ তিনি সুস্থ বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা৷ চিকিৎসকদের দাবি ক্যানসার কোষ যখন পেটে বা পাকস্থলীর ভিতরে আস্তরন গঠন শুরু করে, ঠিক তখনই পাকস্থলী বা গ্যাস্ট্রিক ক্যান্সার শুরু হয়। পাকস্থলীর ক্যান্সারের প্রাথমিক পর্যায় রোগের উপসর্গ সেভাবে চোখে পরে না৷ এই কোষ গুলো বড় হয়ে টিউমারে পরিণত হতে অনেক বছর সময় লাগে। পাকস্থলীর ক্যান্সার সাধারণত একটি বিরল ঘটনা। তবে এক্ষেত্রে চিকিৎসার জন্য তাড়াতাড়ি রোগ নির্নয় করা জরুরি।বিভিন্ন সময় দেখা গেছে পাকস্থলীর ক্যান্সারের প্রাথমিক পর্যায়ে রোগের উপসর্গ সেভাবে চোখে পরে না। আর এটা এমনই একটা রোগ যার নির্ণয় বা চিকিৎসা দুটিই জটিল। ফলে এই রোগে আক্রান্ত অধিকাংশ রোগীকেই বাঁচানো সম্ভব হয় না। মহিলাদের তুলনায় পুরুষদের ক্ষেত্রে পাকস্থলী ক্যানসারের ঝুঁকি বেশি থাকে।

Akshoy Dhibar
Published by: Pooja Basu
First published: August 23, 2020, 4:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर