Agnimitra Paul faces go back slogan: নিজের বিধানসভাতেই গো ব্যাক স্লোগানের মুখে, তৃণমূলকে দুষলেন অগ্নিমিত্রা

বিজেপি বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল৷ Photo- File

ধস এবং বসত বাড়ির ক্ষতি হয়েছে খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছন অগ্নিমিত্রা৷ তখনই তাঁকে ঘিরে ধরে 'গো ব্যাক' স্লোগান দেওয়া হয় (Agnimitra Paul)৷

  • Share this:

    #আসানসোল: নিজের বিধানসভা এলাকাতেই বিক্ষোভের মুখে পড়তে হল বিজেপি বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পালকে৷ আসানসোলের কালিপাহাড়ি এলাকায় ধসের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয় বেশ কয়েকটি বাড়ি৷ সেই খবর পেয়েই এ দিন সকালে সেখানে পৌঁছন আসানসোল দক্ষিণের বিজেপি বিধায়ক৷ তখনই তাঁকে ঘিরে ধরে গো ব্যাক স্লোগান দেন বেশ কিছু স্থানীয় বাসিন্দা৷ বিজেপি বিধায়কের অবশ্য অভিযোগ, তৃণমূলের তরফেই ইচ্ছাকৃত ভাবে তাঁকে ঘিরে ধরে স্লোগান দেওয়া হয়েছে৷

    আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত কালিপাহাড়ি এলাকার যেখানে ধস নামে, তার কাছেই ইসিএলের একটি পরিত্যক্ত খনি রয়েছে৷ রবিবার রাত থেকেই এলাকায় কম্পন অনুভব করেন মানুষ৷ বেশ কয়েকটি বাড়িতে চিড় ধরতে শুরু করে৷ সোমবার সকাল থেকে বাড়িগুলির দেওয়ালের ফাটল বড় আকার ধারণ করে৷ আতঙ্কে বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে আসেন স্থানীয়রা৷ ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির বাসিন্দাদের অন্যত্র থাকার ব্যবস্থা করে পুলিশ৷

    আরও পড়ুন: 'নন্দীগ্রামে হারিয়েছি, ভবানীপুরেও হারাব!' মোদি 'ম্যাজিকে' মমতাকে হুঁশিয়ারি অগ্নিমিত্রার

    ধস এবং বসত বাড়ির ক্ষতি হয়েছে খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছন অগ্নিমিত্রা৷ তখনই তাঁকে ঘিরে ধরে 'গো ব্যাক' স্লোগান দেওয়া হয়৷ যাঁরা বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন, তাঁদের সঙ্গে কথা কাটাকাটিতেও জড়িয়ে পড়েন বিজেপি বিধায়ক৷ তাঁর অবশ্য দাবি, গোটাটাই তৃণমূলের পরিকল্পনা৷ এই বিক্ষোভের সঙ্গে সাধারণ মানুষের যোগ নেই৷

    ক্ষুব্ধ অগ্নিমিত্রা পাল দাবি করেন, এই এলাকার বাসিন্দাদের পুনর্বাসন দিতে বাম আমলেই টাকা পাঠিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার৷ বিজেপি বিধায়কের প্রশ্ন, 'আমাকে গো ব্যাক বলে কী হবে? আমি তো চার মাস এসেছি, আর তৃণমূল সরকার এগারো বছর ক্ষমতায় রয়েছে৷ তার পরেও কেন এখানাকার মানুষকে নিরাপদ জায়গায় পুনর্বাসন দেওয়া গেল না? এই দুর্ঘটনার জন্য অপেক্ষা করছিল? যাতে রাজনীতির খেল খেলা যায়!' বিজেপি বিধায়ক জানান, স্থানীয় বাসিন্দাদের পুনর্বাসনের বিষয়ে তিনি ইসিএল কর্তৃপক্ষের সঙ্গেও কথা বলবেন৷ যদিও তাতে কোনও কাজ হবে কি না তা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেন বিধায়ক নিজেই৷ ইসিএল কর্তপক্ষের অবশ্য অভিযোগ, পরিত্যক্ত খনির লাগোয়া তাদের জমিতে জবরদখল করে ওই বাড়িগুলি তৈরি করা হয়৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: