মমতার সভার আগে বিজেপির 'পরিবর্তন রথযাত্রা' ঘিরে উত্তেজনা মুর্শিদাবাদে

মমতার সভার আগে বিজেপির 'পরিবর্তন রথযাত্রা' ঘিরে উত্তেজনা মুর্শিদাবাদে
বিজেপির বিক্ষোভ। ছবি: প্রণব বন্দ্যোপাধ্যায়

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বহরমপুরে মঙ্গলবার জনসভা করবেন। সেই কারণে পরিবর্তন রথের পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি ছিল কান্দি হয়ে বড়ঞা যাওয়ার।

  • Share this:

#বেলডাঙা: বিজেপির পরিবর্তন রথযাত্রা ঘিরে উত্তেজনা ছড়াল মুর্শিদাবাদের বেলডাঙায়। সোমবার বেলডাঙ্গার ভারত সেবাশ্রম আশ্রম থেকে পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী নওদা, হরিহরপাড়া হয়ে বহরমপুরে যাওয়ার কথা ছিল পরিবর্তনের রথ। সকালে পুলিশ ওই নির্দিষ্ট রুটে রথ যেতে বাধা দেয় বলে অভিযোগ। এর পরই বিজেপি কর্মীরা বেলডাঙ্গা নওদার রাজ্য সড়কে বসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। বিশাল পুলিশবাহিনী পথ আটকে দেয়। এর পর পুলিশের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বেলডাঙ্গা থেকে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক ধরে বহরমপুর যেতে হবে পরিবর্তন রথকে।

প্রায় ঘন্টাখানেক অবরোধের পর বিজেপি নেতৃত্ব পুলিশের দেওয়া ওই রুটকে মেনে নেয় ও পরিবর্তনের রথ যাত্রা শুরু করে। বহরমপুর শহরের দশ মুন্ডু কালী বাড়ি মাঠে রথ গিয়ে পৌঁছয় বিকেলে ও সেখানে গিয়ে সভা হয়। জেলা পুলিশ সুপার কে সাবির রাজকুমার বলেন, 'নওদা ও হরিয়ার পাড়া এলাকা স্পর্শকাতর হওয়ায় আমরা একাধিকবার বৈঠক করে ওই রাস্তা বদল করার জন্য নেতাদের আগে বলেছিলাম। পরবর্তীকালে জাতীয় সড়ক দিয়ে যায়।' এ ব্যাপারে বিজেপি সভাপতি গৌরীশংকর ঘোষ বলেন, 'অনেক আগে থেকেই এই রুটের কথা পুলিশকে জানিয়েছিলাম। শাসক দলকে খুশি করার জন্য পুলিশ আমাদের বাধা দেয়। যেহেতু আমাদের বহরমপুর এ কর্মসূচি রয়েছে সেই কারণে আমরা বিকল্প রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিই।'

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বহরমপুরে মঙ্গলবার জনসভা করবেন। সেই কারণে পরিবর্তন রথের পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি ছিল কান্দি হয়ে বড়ঞা যাওয়ার। সেই কর্মসূচিতেও কিছুটা পরিবর্তন নিয়ে আসে বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপি মুর্শিদাবাদ উত্তর জেলা সভাপতি গৌরীশংকর ঘোষ বলেন, 'মঙ্গলবার আমরা পরিবর্তন রথ দশমুন্ডু কালী বাড়িতেই থাকবে। সেখানে বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও সংকীর্তন হবে। কর্মী-সমর্থকরাও সেখানে উপস্থিত থাকবেন। তৃণমূলের জেলা সভাপতি আবু তাহের খান বলেন, আমাদের মুখ্যমন্ত্রী আসবেন। ওরা নিজেরাই গন্ডগোল করতে আসছে। আমাদের সমর্থক রা যাতে যাতে কোনো প্ররোচনাতে না পা দেয় তার জন্য  নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।'


Published by:Raima Chakraborty
First published: