• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • সাত মাস পর ট্রেন ঢুকল দিঘায়, ফেস্টিভ্যাল এক্সপ্রেস ট্রেনে চেপে কতজন পর্যটক এলেন শুনলে অবাক হবেন!

সাত মাস পর ট্রেন ঢুকল দিঘায়, ফেস্টিভ্যাল এক্সপ্রেস ট্রেনে চেপে কতজন পর্যটক এলেন শুনলে অবাক হবেন!

এই বিষয়ে সংস্থার বক্তব্য, কেন্দ্রীয় সরকার আত্মনির্ভর ভারত গড়ে তোলার যে সংকল্প নিয়েছে, সেই লক্ষ্যেই যাত্রী ও গ্রাহকদের স্বার্থে এই নতুন পেমেন্ট গেটওয়ে আনা হয়েছে। এক্ষেত্রে, অন্যান্য প্ল্যাটফর্মের তুলনায় এই নতুন পেমেন্ট গেটওয়ে যাত্রীদের অনেকটা সময় বাঁচাবে। সব চেয়ে বড় বিষয় হল এই লেটেস্ট পেমেন্ট গেটওয়ের সাহায্যে তৎক্ষণাৎ রিফান্ড পাওয়া যায়। অর্থাৎ IRCTC ওয়েবসাইট বা মোবাইল অ্যাপের সাহায্যে টিকিট বুক করার পর যদি কেউ তা বাতিল করে দেয়, তাহলে তড়িঘড়ি মিলবে রিফান্ডের টাকা

এই বিষয়ে সংস্থার বক্তব্য, কেন্দ্রীয় সরকার আত্মনির্ভর ভারত গড়ে তোলার যে সংকল্প নিয়েছে, সেই লক্ষ্যেই যাত্রী ও গ্রাহকদের স্বার্থে এই নতুন পেমেন্ট গেটওয়ে আনা হয়েছে। এক্ষেত্রে, অন্যান্য প্ল্যাটফর্মের তুলনায় এই নতুন পেমেন্ট গেটওয়ে যাত্রীদের অনেকটা সময় বাঁচাবে। সব চেয়ে বড় বিষয় হল এই লেটেস্ট পেমেন্ট গেটওয়ের সাহায্যে তৎক্ষণাৎ রিফান্ড পাওয়া যায়। অর্থাৎ IRCTC ওয়েবসাইট বা মোবাইল অ্যাপের সাহায্যে টিকিট বুক করার পর যদি কেউ তা বাতিল করে দেয়, তাহলে তড়িঘড়ি মিলবে রিফান্ডের টাকা

বাঙালির প্রিয় দীঘায় ফের ট্রেনে করে যাত্রা শুরু

  • Share this:
#দীঘা: লকডাউন আর করোনার কারনে অন্যান্য জায়গার মতো দিঘার রেলপথেও গত সাত মাস ধরে  বন্ধ ছিল ট্রেন চলাচল। শুক্রবার পুজোর ঠিক আগে আগেই হাওড়া থেকে আসা ফেস্টিভ্যাল এক্সপ্রেস ট্রেন ঢুকল দিঘায়। অনেক দিন পর চালু হওয়া এই উৎসব ও পুজো স্পেশাল ট্রেনে চেপে স্বল্প সংখ্যক পর্যটকই এদিন দিঘায় এসেছেন। বিরতির পর আজ প্রথমদিন ট্রেনে চড়ে দিঘা এসেছেন মাত্র ৮ জন পর্যটক। এদিন অর্থাৎ ১৬ অক্টোবর থেকে শুরু করে আগামী ৩১ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ৪৭ দিন দিঘা রেলপথে টানা চলবে এই স্পেশাল ট্রেন। ট্রেনটি প্রতিদিন একবার করে চলবে। হাওড়ায় প্রতিদিন ছাড়বে সকাল ১১:১০ মিনিটে। দিঘায় পৌছবে দুপুর ০২:২০ মিনিটে। আবার দিঘা থেকে ট্রেনটি হাওড়ার উদ্দেশ্যে ছাড়বে ০৩:৩০ মিনিটে। ট্রেনটি হাওড়া পৌঁছবে ০৬:৪০ মিনিটে। যাত্রী প্রতি ট্রেন ভাড়া ৪৮৫ টাকা। SUJIT BHOWMIK
Published by:Elina Datta
First published: