নৃশংসতার চরমতম নিদর্শন! চিৎকার করায় আগে খুন করে গণধর্ষণ করা হয় নাবালিকাকে

নৃশংসতার চরমতম নিদর্শন! চিৎকার করায় আগে খুন করে গণধর্ষণ করা হয় নাবালিকাকে
প্রতীকী চিত্র ৷
  • Share this:

#জিরাট: নির্ভয়া কান্ডের ভয়াবহতার রেশ তখনও মানুষের মুখে মুখে। তার বছর দুয়েকের মধ্যেই হুগলির জিরাটের গণধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় শিউরে উঠেছিলেন রাজ্যের মানুষ। ছয় বছর পর নির্ভয়ার সঙ্গে এক সারিতে জিরাটের নির্যাতিতা। ঘটনার ভয়াবহতা, বিরলতাকে উল্লেখ করে দোষী সাব্যস্ত দু'জনের ফাঁসির নির্দেশ চুঁচুড়া আদালতের ৷

৬ বছরের শুনানি শেষে বিচার পেল হুগলির বলাগড়ের নির্যাতিতা। বলাগড়ের জিরাটের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ২০১৪ সালের ১২ই ডিসেম্বর অপহরণ করা হয় মুক্তিপণের দাবিতে। সেদিন টিউশন পড়ে ফেরার পথেই অপহৃত হয় নাবালিকা। পুলিশে অভিযোগও জানায় পরিবার। অপহরণের ঠিক ২-দিনের মাথায় ১৪ই ডিসেম্বর ইট ভাঁটার পিছনে গঙ্গার পারে মাটি খুঁড়ে উদ্ধার হয় ছাত্রীর দেহ। চমকে দেওয়ার মত তথ্য মেলে পোস্টমর্টেমে। জানা যায় আগে খুন করে তারপর গণধর্ষণ করা হয় নাবালিকাকে। গ্রেফতার করা হয় তিন অভিযুক্ত গৌরব মন্ডল ওরফে শানু, কৌশিক মালিক ও এক নাবালককে । ধৃত নাবালকের শুনানি চলছে জুভেনাইল কোর্টে। দীর্ঘ ৬ বছরের শুনানি শেষে গৌরব মন্ডল ও কৌশিক মালিকের ফাঁসির সাজা শোনাল চুঁচুড়া আদালত ৷

First published: January 28, 2020, 8:47 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर