corona virus btn
corona virus btn
Loading

কলকাতা থেকে আসা পুরুষ মহিলাদের ওপর বাড়তি নজরদারি চালাবে এই জেলা প্রশাসন

কলকাতা থেকে আসা পুরুষ মহিলাদের ওপর বাড়তি নজরদারি চালাবে এই জেলা প্রশাসন

জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানান, পূর্ব বর্ধমান জেলায় ঢোকার মুখে জামালপুরে ও পালসিটে চেক পোস্ট থাকবে।

  • Share this:

#বর্ধমান: কলকাতা থেকে ফেরা পুরুষ মহিলাদের ওপর বাড়তি নজরদারির সিদ্ধান্ত নিল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন।এজন্য দু নম্বর জাতীয় সড়কের জৌগ্রামের কাছে ও পালসিটে চেক পোস্ট বসিয়ে তাদের ওপর নজরদারি চালানোর পরিকল্পনা নিয়েছে পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। কলকাতার দিক থেকে আসা প্রত্যেক যাত্রীর পরিচয় খতিয়ে দেখা হবে। ওই ব্যক্তি কি জন্য আসছেন তা জানতে চাওয়া হবে। তিনি কোথা থেকে আসছেন তা খতিয়ে দেখবে জেলা প্রশাসন। করোনা  সংক্রমণ রুখতেই  এই ব্যবস্থা বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানান, পূর্ব বর্ধমান জেলায় ঢোকার মুখে জামালপুরে ও পালসিটে চেক পোস্ট থাকবে। বাসিন্দারা কোথা থেকে জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানান, পূর্ব বর্ধমান জেলায় ঢোকার মুখে জামালপুরে ও পালসিটে চেক পোস্ট থাকবে।আসছেন তা সেখানে খতিয়ে দেখা হবে। কন্টেইনমেন্ট জোনের বাসিন্দা হলে তাদের ঢুকতে দেওয়া হবে না। অন্যান্য যাত্রীদের থার্মাল স্ক্রিনিং করা হবে। কারও মধ্যে করোনার উপসর্গ থাকলে তাকে করোনা হাসপাতলে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় এখনও পর্যন্ত যে কয়টি করোনা আক্রান্তেরহদিস মিলেছে তাদের প্রত্যেকেরই কলকাতার সঙ্গে যোগ মিলেছে। এই জেলায় খণ্ডঘোষে প্রথম করোনা আক্রান্তের হদিশ মেলে। কলকাতা মেটিয়াবুরুজ থেকে এক ব্যক্তি মোটর সাইকেলের খণ্ডঘোষের বাদুলিয়া গ্রামে ফিরেছিলেন। তাঁর শরীরে করোনার সংক্রমণ পাওয়া যায়।তার সংস্পর্শে আশায় ওই ব্যক্তির নয় বছরের ভাইঝিও করোনায় আক্রান্ত হয়। এরপর বর্ধমানের সুভাষপল্লী এলাকায় এক নার্স করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি কলকাতার একটি হাসপাতালে কর্মরতা ছিলেন। অসুস্থ বোধ করায় তিনি বর্ধমানে এসে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা করান।সেখানে তাঁর শরীরে করোনা পজেটিভ রিপোর্ট মেলে। করোনা পজেটিভ হন মেমারির সোমেশ্বর তলা এলাকার এক যুবক। কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানেই তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। তিনি বাড়িতে ফেরার পর তাঁর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

এই জেলায় করোনা আক্রান্ত প্রত্যেকের সঙ্গেই কলকাতার যোগ স্পষ্ট হওয়ার পরই কলকাতা থেকে আসা বাসিন্দাদের ওপর বাড়তি নজরদারির ব্যবস্থা করার পরিকল্পনা নিয়েছে জেলা প্রশাসন। কলকাতা থেকে আসতে গেলে দু নম্বর জাতীয় সড়কে পালসিট বা তারও আগে জৌগ্রাম পার হতে হয়।তাই এই দুটি পয়েন্টে চেকপোস্ট বসানোর পরিকল্পনা নিয়েছে জেলা প্রশাসন। সেখানেই তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। খুব তাড়াতাড়ি এই পরিকল্পনা কার্যকর করার চেষ্টা চলছে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

Published by: Bangla Editor
First published: May 11, 2020, 7:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर