’ভবানীপুরে হারবেন. সেই কারণে নন্দীগ্রামে দাঁড়াচ্ছেন’, মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ অধীরের

’ভবানীপুরে হারবেন. সেই কারণে নন্দীগ্রামে দাঁড়াচ্ছেন’, মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ অধীরের
প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেন, ভবানীপুরে অবাঙালি ভোটার প্রচুর। তিনি বাঙালি ও অবাঙালি নিয়ে যে রাজনীতি করেছেন, তাতেই ওই এলাকার অবাঙালিরা অখুশি রয়েছে।

প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেন, ভবানীপুরে অবাঙালি ভোটার প্রচুর। তিনি বাঙালি ও অবাঙালি নিয়ে যে রাজনীতি করেছেন, তাতেই ওই এলাকার অবাঙালিরা অখুশি রয়েছে।

  • Share this:

Pranab Kumar Banerjee

#নবগ্রাম: ভবানীপুরে তিনি হারবেন। তাই তিনি দ্বিতীয় অপশন হিসাবে নন্দীগ্রামে দাঁড়াবেন বলেছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রামে ভোটে দাঁড়াবেন এই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেন, ভবানীপুরে  অবাঙালি ভোটার প্রচুর। তিনি বাঙালি ও অবাঙালি নিয়ে যে রাজনীতি করেছেন, তাতেই ওই এলাকার অবাঙালিরা অখুশি রয়েছে। সেই কারণেই নন্দীগ্রামে দাঁড়াবেন বলছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

মুর্শিদাবাদ জেলা কংগ্রেসর ডাকে এবং পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরীর  উপস্থিতিতে নবগ্রামের কেন্দ্র সরকারের বিভিন্ন জনবিরোধী নীতি ও রাজ্য সরকারের ধারাবহিক সার্বিক ব্যর্থতার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল চলে এবং তারপর নবগ্রামে এক জনসভার আয়োজিত হয় প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি  অধীর রঞ্জন চৌধুরীর নেতৃত্বে। হাজার হাজার কর্মী সমর্থক ও সাধারণ মানুষের উপস্থিতি মিছিল ও জনসভা হয়।  আজকের এই বিশাল জনসভা তথা মহা প্রতিবাদ মিছিলে অধীর রঞ্জন চৌধুরী কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের বিভিন্ন জনবিরোধী পদক্ষেপের বিরুদ্ধে মানুষকে সোচ্চার হবার আহ্বান জানান। তিনি আজ সারদা, নারদা সহ অন্যান্য চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্তদের শাস্তির  দাবিতে মুর্শিদাবাদের নবগ্রামে মহামিছিল ও সভায় বক্তব্য রাখেন।


তিনি বলেন কৃষক বিরোধী সরকার আর দরকার নেই! কৃষক বিরোধী কৃষি আইন প্রত্যাহার এবং প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদেও তিনি সোচ্চার হন আজকের এই সভায়। পেট্রোল ডিজেল সহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় সামগ্রীর যে সাংঘাতিক মূল্যবৃদ্ধি ঘটেছে তিনি তার বিরুদ্ধে ধিক্কার জানান। অধীর আরও বলেন যে , ভারতবর্ষে এবং পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্র আজ দুর্ভাগা। আর এই দুর্ভাগ্যের বিরুদ্ধে একমাত্র লড়াই করতে পারে জনসমাজ । তাই জনসমাজকে আরও বেশী করে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে এই দুই বিভেদকামী শক্তির বিরুদ্ধে। অধীর রঞ্জন চৌধুরী বলেন যে, কংগ্রেস যুগ যুগ ধরে ধর্মনিরপক্ষেতার কথা বলেছে । আজ এই কঠিন সময়ে ভারতবর্ষ তথা পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্র দরকার । দরকার মৈত্রী ও সংহতির । আর তাই ভারতবর্ষ তথা পশ্চিমবঙ্গকে রক্ষা করতে দরকার একমাত্র কংগ্রেসকে ।

Published by:Simli Raha
First published: