স্বস্তির খবর! রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার লিংক হবে এবার থেকে সব জায়গায়...

সোমবারই এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করেছে খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তর।

সোমবারই এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করেছে খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তর।

  • Share this:

#কলকাতা: ডিজিটাল রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার লিঙ্ক-এর কাজ দ্রুততার সঙ্গে করতে চায় রাজ্য খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তর। তার জন্যই এবার আরও সরল করা হল ডিজিটাল রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার লিঙ্ক করার প্রক্রিয়া। সোমবারই এক গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা জারি করেছে খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তর। নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, আঙুল ছাপের মাধ্যমেও বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশন করা যাবে। খাদ্য সরবরাহ দপ্তরের ইন্সপেক্টর রেশনিং অফিসার-এর অফিস থেকেও হবে। শুধু তাই নয়, বাংলা সহায়তা কেন্দ্র থেকেও আজ এই কাজ করা যাবে। যদিও আগের মতো রেশন দোকান থেকেও আধার সংযুক্তিকরণের কাজ করার কথা বলা হয়েছে নির্দেশিকায়। পাশাপাশি বাড়ি বাড়ি গিয়েও এই কাজ করে দিতে হবে বলেও নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে।

নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, আধার কার্ডের সঙ্গে ডিজিটাল রেশন কার্ড লিঙ্ক করার জন্য যে কেউ ব্যক্তিগতভাবে নিকবর্তী খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তরের ইন্সপেক্টর রেশনিং অফিসার অফিসে যেতে পারেন। সেখানকার দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসাররা প্রথমে আবেদনকারী ডিজিটাল রেশন কার্ড খতিয়ে দেখবেন। এর পরে আধার নাম্বার ক্যাপচার করা হবে। তারপর রেশন কার্ডের মালিককে আঙুলের ছাপ দিতে হবে। অথেন্টিকেশন শেষ হলে কম্পিউটারের স্ক্রিনে আবেদনকারীর নাম, নম্বর, জন্মের তারিখ ইত্যাদি দেখা যাবে।

তারপর সংশ্লিষ্ট অফিসাররা আধার কার্ডে দেওয়া তথ্যের সঙ্গে ডিজিটাল রেশন কার্ড মিলিয়ে দেখবেন আধার কার্ড রেশন কার্ডের মালিক একই ব্যক্তি কি না! আধার লিংক-এর জন্য প্রত্যেক পরিবারের সদস্যকে একই সঙ্গে আসতে হবে না। তাঁরা নিজেদের সুবিধা মতো আসলেই হবে। শুধু তাই নয়, আধার কার্ড ডিজিটাল, রেশন কার্ড বাদে প্রত্যেক পরিবারের অন্তত একজনের মোবাইল নাম্বার লিংক এর কাজ খাদ্য সরবরাহ দপ্তর অফিস থেকে করা হবে। মোবাইল নাম্বার লিঙ্ক করা হবে ওটিপি ভেরিফিকেশন এর মাধ্যমে।

পয়লা জুলাই থেকেই বাড়ি বাড়ি গিয়ে আধার কার্ডের সঙ্গে রেশন কার্ড লিঙ্ক করার কাজ শুরু করা হয়। মূলত এই লিঙ্ক করার কাজের দুটি ধাপ রয়েছে। প্রথম ধাপে বাড়িতে বাড়িতে কাজ করা হচ্ছে আর দ্বিতীয় ধাপে বাংলা সহায়তা কেন্দ্র গিয়ে কাজটি করিয়ে নিতে হচ্ছে। মূলত বাজারে অনেক জাল ডিজিটাল রেশন কার্ড রয়েছে। গোটা প্রক্রিয়াকে স্বচ্ছ করতেই এই আধার কার্ডের সঙ্গে লিংক প্রয়োজন। ইতিমধ্যে জাল রেশন কার্ড বের করার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়েছেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এক্ষেত্রে নয়া নির্দেশিকা মাধ্যমে আধার কার্ডের সঙ্গে রেশন কার্ডের লিঙ্ক-এর প্রক্রিয়া আরো সহজ হল সাধারণ মানুষের জন্য।

Published by:Suman Majumder
First published: