Abhishek Banerjee: 'তথ্য'হীন বিজেপির কী হবে? 'খেলা'র ফল আগাম জানিয়ে দিলেন অভিষেক

Abhishek Banerjee: 'তথ্য'হীন বিজেপির কী হবে? 'খেলা'র ফল আগাম জানিয়ে দিলেন অভিষেক

বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরে ভোট প্রচারে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

বিজেপির ইশতেহার নিয়েও এদিন কটাক্ষ করেন অভিষেক। হিন্দিতে বাংলার ইশতেহার প্রকাশ নিয়ে তোপ দাগেন তিনি। তাঁর কথায়, 'নিজের নাম বাংলায় লিখতে পারবে না, পিছনে কী লেখা রয়েছে পড়তে পারবে না, এরা নাকি সোনার বাংলা বানাবে।'

  • Share this:

    #বিষ্ণুপুর: তথ্য পরিসংখ্যান নিয়ে মাঠে নামেনি কেন বিশ্বের সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক দল বিজেপি? বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরে ভোট প্রচারে গিয়ে ফের একবার বিজেপিকে তোপ দাগলেন তৃণমূলের যুব সভাপতি ও সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর আক্রমণ, 'মোদিজি বলেছিলেন ১৫ লক্ষ টাকা দেব, দেয়নি। ২ কোটি চাকরি দেব, দেননি, মোদিজি বলেছিলেন নোটবন্দি করে কালো টাকা উদ্ধার করব, হয়নি। জিএসটি করে অর্থনীতি উন্নত করব, অর্থনীতি রসাতলে গিয়েছে, বিজেপির প্রতিশ্রুতি সব অসম্পূর্ণ।' যদি উন্নয়নের নিরিখে ১০-০ গোলে বিজেপিকে হারাতে না পারেন, তবে রাজনৈতিক আঙিনা ছেড়ে দেওয়ার চ্যালেঞ্জ ছুড়েছেন অভিষেক।

    তিনি বলেন, 'একদিকে বহিরাগত নেতা বলছেন আমাদের ৫ বছর সুযোগ করে দিন। আমরা সোনার বাংলা গড়ে দেখাব। অন্যদিকে, বাংলার মেয়ে বলেছেন ১০ বছরে কাজের হিসাব নিন, জোটবদ্ধ হয়ে তৃণমূলকে ভোট দিন। আপনি কাকে বাছবেন, সেই সিদ্ধান্ত আপনার' মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই বাংলাকে উন্নয়নের চালকে বসাবেন, চ্যালেঞ্জ করেন অভিষেক। বিনা পয়সার ভাষণ, নাকি বিনা পয়সার রেশন, তা বেছে নিতে বিষ্ণুপুরের মানুষকেই দায়িত্ব দেন তিনি।

    বিজেপির ইশতেহার নিয়েও এদিন কটাক্ষ করেন অভিষেক। হিন্দিতে বাংলার ইশতেহার প্রকাশ নিয়ে তোপ দাগেন তিনি। তাঁর কথায়, 'নিজের নাম বাংলায় লিখতে পারবে না, পিছনে কী লেখা রয়েছে পড়তে পারবে না, এরা নাকি সোনার বাংলা বানাবে।' কেন দিল্লিতে থেকে সোনার ভারতবর্ষ হয়নি, কেন সোনার উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, অসম, ত্রিপুরা হয়নি তা নিয়ে ফের একবার প্রশ্ন করেছেন অভিষেক। তাঁর দাবি, 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যা বলেন, কাজে করে দেখান। সেটাই সোনার বাংলা করার সংকল্প'। সভা থেকে এদিন মমতাকে বারমুডা পরা নিয়ে দিলীপ ঘোষের মন্তব্যকে সমালোচনা করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

    এদিন স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়ে দিলীপ ঘোষের ভাঁওতা মন্তব্যকে চ্যালেঞ্জ করেন অভিষেক। দিলীপ ঘোষের বাড়ির লোকের স্বাস্থ্যসাথী কার্ড করার প্রসঙ্গ টেনে এনে আক্রমণ করেন তিনি। তাঁর কথায়, 'পরিষেবা দিলে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে দেব, স্বাস্থ্যসাথী করলে বাংলার ১০ কোটি মানুষকে পরিষেবা দেব। আয়ুষ্মান ভারত করা হয়েছে বাংলার ১০ শতাংশ মানুষের জন্য। স্বাস্থ্যসাথী নারীর ক্ষমতায়নের প্রতীক হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৈরি করেছেন।'

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:

    লেটেস্ট খবর