'অমিত শাহের সভায় ভিড় হয়নি', ঝাড়গ্রাম আসতে না পারায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে কটাক্ষ অভিষেকের

'অমিত শাহের সভায় ভিড় হয়নি', ঝাড়গ্রাম আসতে না পারায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে কটাক্ষ অভিষেকের

দাঁতনে অভিষেক

আজ ঝাড়গ্রামে সভা করার কথা ছিল স্বরাষ্ট্রমমন্ত্রী অমিত শাহের। কিন্তু হেলিকপ্টারে গোলযোগ দেখা যাওয়ায় তিনি সেই সভায় আসতে পারেননি। ভার্চুয়ালি অর্থাৎ ভিডিওর মাধ্যমেই তিনি মানুষের উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন। এই প্রসঙ্গেই বিজেপিকে কটাক্ষ করলেন তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • Share this:

    #দাঁতন: আজ ঝাড়গ্রামে সভা করার কথা ছিল স্বরাষ্ট্রমমন্ত্রী অমিত শাহের। কিন্তু হেলিকপ্টারে গোলযোগ দেখা যাওয়ায় তিনি সেই সভায় আসতে পারেননি। ভার্চুয়ালি অর্থাৎ ভিডিওর মাধ্যমেই তিনি মানুষের উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন। এই প্রসঙ্গেই বিজেপিকে কটাক্ষ করলেন তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। দাঁতন থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছেন বিক্রম চন্দ্র প্রধান। তাঁর প্রচারেই এদিন এখানে সভা করেন অভিষেক।

    শাহ-কে নিশানা করে দাঁতন থেকে অভিষেক বললেন, "ঝাড়গ্রামে অজ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সভা করার কথা ছিল। যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে তিনি আসতে পারেননি। কিন্তু সভার যা ছবি আমার কাছে আসছে, তাতে দেখা যাচ্ছে সর্বভারতীয় মন্ত্রী আসছে কিন্তু যা ভিড় হচ্ছে তার থেকে বেশি ভিড় চায়ের দোকানে বেশি হয়।"

    বিজেপিকে কার্যত আক্রমণ করে তিনি বলেন, "আড়াইশোর বেশি আসন পাবে তৃণমূল। একজন মহিলাকে আক্রমণ করতে গিয়ে বিজেপির মতো দল চূর্ণ বিচূর্ণ হয়ে যাবে। নিজেরাই তিলে তিলে ধ্বংস হয়ে যাবে। কারণ এরা বাংলাকে মধ্যপ্রদেশ ও গুজরাতের সঙ্গে গুলিয়ে ফেলছে।"

    অভিষেক বলছেন, "একজন বিশ্বাসঘাতক হতে পারে। কিন্তু মেদিনীপুরের মানুষ বিশ্বাসঘাতকদের পছন্দ করে না। মানুষ বিশ্বাসঘাতকের জবাব দেবে।"

    বিজেপির সোনার বাংলা গড়ার প্রতিশ্রুতি প্রসঙ্গেও এদিন তোপ দাগেন অভিষেক। তিনি বলেন, "মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় সোনার বাংলা গড়েছে যা আগামী দিনে ভারতবর্ষকে পথ দেখাবে।" এদিন ফের 'বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়' স্লোগান তোলেন অভিষেক।

    প্রসঙ্গত, চোট পাওয়ার পরে মমতা বলেছেন যে হুইল চেয়ারে করেই তিনি এবার প্রচার করবেন। সেই মতোই গতকাল নন্দীগ্রাম দিবসে হুইল চেয়ারে বসেই মিছিলে অংশ নিয়েছেন তিনি। আজও তাঁর জঙ্গলমহলের সভায় হুইল চেয়ারেই অংশ নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: