corona virus btn
corona virus btn
Loading

নাকা চেকিং শুরু হতেই গাড়ি থেকে উদ্ধার কেজি কেজি গাঁজা, গ্রেফতার দুই

নাকা চেকিং শুরু হতেই গাড়ি থেকে উদ্ধার কেজি কেজি গাঁজা, গ্রেফতার দুই
পুলিশের জালে গাঁজা পাচার চক্রের পান্ডা

সেই চক্রের সঙ্গে আরও কারা জড়িত, সেই চক্রের জাল কতদূর বিস্তৃত সেসব বিশদে জানার চেষ্টা চলছে।

  • Share this:

পূর্ব বর্ধমান: দ্রুত গতিতে কাটোয়া থেকে বর্ধমানের দিকে ছুটছিল একটি চারচাকা গাড়ি। গতিবিধি দেখে সন্দেহ হয় পুলিশের। বর্ধমানের কুড়মুন মোড়ে গাড়িটিকে দাঁড় করায় দেওয়ানদিঘি থানার পুলিশ কর্মীরা। সে সময় সেখানে নাকা চেকিং চালাচ্ছিল তারা। রাস্তাওর পাশে গাড়িটি দাঁড় করিয়ে তল্লাশি চালাতে গিয়ে তাজ্জব হয়ে যান পুলিশ কর্মীরা। গাড়িতে মেলে প্যাকেট প্যাকেট গাঁজা। সিটের তলায় লুকিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেগুলি।

তল্লাশিতে মেলে এগারো কেজি পাঁচশো গ্রাম গাঁজা। বামাল গ্রেফতার করা হয় দুই যুবককে। বাজেয়াপ্ত করা হয় চারচাকা গাড়িটি। আটক করা হয় গাঁজার প্যাকেটগুলি।

ধৃতদের এক জনের নাম জাহাঙ্গির আলম। বয়স পঁচিশ বছর। জাহাঙ্গিরের বাড়ি উত্তরবঙ্গে। কোচবিহারের দিনহাটায়। অপর ধৃতের নাম লিয়াকত আলি সেখ। বয়স বাইশ বছর।  বাড়ি কাটোয়ার গিধগ্রামে।পুলিশ সূত্রে জানা গেছে,লিয়াকতের বাবা মঙ্গলকোটের গিধগ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান। তাঁর ছেলে গাঁজা পাচারে যুক্ত থাকায় জেলা জুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে,  কুড়মুন স্কুল মোড়ে এ দিন রুটিন নাকা চেকিং চলছিল। দ্রুত গতিতে ছুটে আসা চার চাকা গাড়িটি দূর থেকে পুলিশ দেখে থমকে যায়। তাতেই সন্দেহ বাড়ে। এরপর তল্লাশি শুরু হতেই একের পর এক গাঁজার প্যাকেট বের হতে শুরু করে। পুলিশের সন্দেহ রাজ্য জুড়ে গাঁজা পাচারে যুক্ত এই দুই যুবক। উত্তর বঙ্গের জাহাঙ্গিরের সঙ্গে লিয়াকতের পরিচয় কোন সূত্রে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

এক তদন্তকারী পুলিশ অফিসার জানান, ওই গাঁজা কোথা থেকে নিয়ে আসা হয়েছিল তা খোঁজ নিয়ে দেখা হচ্ছে। কোথাও আরও গাঁজা তারা মজুত করে রেখেছে কিনা, কোথায় তা নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল, কোন কোন এলাকায় কাদের কত দামে সেই গাঁজা বিক্রি করা হতো তা বিস্তারিত জানতে ধৃতদের দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পুলিশের অনুমান, একটি মাদক পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত ধৃত এই দুই যুবক। সেই চক্রের সঙ্গে আরও কারা জড়িত, সেই চক্রের জাল কতদূর বিস্তৃত সেসব বিশদে জানার চেষ্টা চলছে।

Published by: Arka Deb
First published: June 28, 2020, 7:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर