corona virus btn
corona virus btn
Loading

খাদ্য সামগ্রীর সঙ্গে লুডো ! বাসিন্দাদের ঘরে রাখতে অভিনব উদ্যোগ 

খাদ্য সামগ্রীর সঙ্গে লুডো ! বাসিন্দাদের ঘরে রাখতে অভিনব উদ্যোগ 

শুধু লুডো খেলেই কি পেট ভরবে? সঙ্গে চাল ডাল আলুও তো চাই। সেই ব্যবস্থাও করেছে তারা।

  • Share this:

#বর্ধমান: ঘরে বসে থেকে ক্লান্ত! কি করবেন ভেবে পাচ্ছেন না। চলুন তবে একটু লুডোই হয়ে যাক। কিন্তু দোকান বন্ধ। লুডোই বা পাবেন কোথায়! এই লুডো দিয়েই বাসিন্দাদের ঘরে আটকে রাখার অভিনব উদ্যোগ নিল পূর্ব বর্ধমানের মেমারির পাল্লা রোডের পল্লীমঙ্গল সমিতির সদস্যরা। কিন্তু শুধু লুডো খেলেই কি পেট ভরবে? সঙ্গে চাল ডাল আলুও তো চাই। সেই ব্যবস্থাও করেছে তারা।

এলাকায় পিছিয়ে পড়া দিন আনি দিন খাই বাসিন্দাদের অনেকের ঘরেই খাবার নেই। খাবারের সন্ধানে লক ডাউন অমান্য করে ঘরের বাইরে বের হতে হচ্ছে তাদের। থেকে যাচ্ছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ঝুঁকি। তাই খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে তাদের নিশ্চিন্তে ঘরে থাকার ব্যবস্থা করেছে পাল্লা রোডের পল্লীমঙ্গল সমিতির সদস্যরা। দুশোটি প্যাকেট করেছে তারা। তাতে থাকছে চাল, দু রকমের ডাল, মুড়ি, আটা, চিনি, তেল,সাবান, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার। আর কি দরকার। আরও আছে। সঙ্গে লুডোর বোর্ড। গুটি। ছক্কা। তাহলে তো এবার একহাত লুডো হয়ে যেতেই পারে।

পল্লীমঙ্গল সমিতির সম্পাদক সন্দীপন সরকার বললেন, বাড়ির বাইরে পা দিলেই করোনা ভাইরাসে সংক্রমণের আশংকা। তাই বাসিন্দারা যাতে ঘরেই থাকেন সেই বার্তা দিতেই লুডো দেওয়া হচ্ছে। মুখে বলছিও সেকথা। এই প্যাকেটে তিন দিনের খাদ্য সামগ্রী থাকছে। তিন দিন পর আমরা আবার ওই দুশো পরিবারের ঘরে এই প্যাকেট পৌঁছে দেব। অনেকেই আমাদের দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন। তাদের পাঠানো খাদ্য সামগ্রী, অর্থে আমাদের এই কর্মসূচি চলছে।

শুধু গরিব পরিবারগুলির কাছে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়াই নয়, দিন রাত এক করে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করছে পাল্লা রোডের পল্লীমঙ্গল সমিতির সদস্যরা। এজন্য ইতিমধ্যেই জরুরি ভিত্তিতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির অনুমোদন দিয়েছে প্রশাসন। জেলা প্রশাসন তাদের হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির সামগ্রীরও ব্যবস্থা করে দিয়েছে। অনেক সরকারি অফিসেই সরবরাহ করা হয়েছে তাদের তৈরি এই হ্যান্ড স্যানিটাইজার।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: April 1, 2020, 9:48 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर