• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • ২৭ মার্চ প্রথম দফা নির্বাচন, ১৭-য় বাংলায় প্রথম ভোট দিয়ে ফেললেন ৮২ বছরের বৃদ্ধ, কী করে?

২৭ মার্চ প্রথম দফা নির্বাচন, ১৭-য় বাংলায় প্রথম ভোট দিয়ে ফেললেন ৮২ বছরের বৃদ্ধ, কী করে?

ভোটদান পর্বের প্রথম দফার ১০ দিন আগেই ভোট দিয়ে ফেলেছেন। তাও আবার নিজের বাড়ি থেকেই।

ভোটদান পর্বের প্রথম দফার ১০ দিন আগেই ভোট দিয়ে ফেলেছেন। তাও আবার নিজের বাড়ি থেকেই।

ভোটদান পর্বের প্রথম দফার ১০ দিন আগেই ভোট দিয়ে ফেলেছেন। তাও আবার নিজের বাড়ি থেকেই।

  • Share this:
    #ঝাড়গ্রাম: বাংলায় ভোটদান পর্ব হবে আট দফায়। প্রথম দফা ২৭ মার্চ। কিন্তু তার দশ দিন আগেই ঝাড়গ্রামের একজন ৮২ বছরের বৃদ্ধা প্রথম ভোট দিয়ে ফেললেন। অর্থাৎ ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের ভোটদান পর্বের সূচনা করে দিলেন সেই বৃদ্ধা। ভাবছেন, এমনটা কী করে সম্ভব! কী করে কেউ ভোটদান পর্ব শুরু হওয়ার আগেই ভোট দিতে পারেন! ঝাড়গ্রামের ৮২ বছরের বৃদ্ধা বাসন্তী ভোটদান পর্বের প্রথম দফার ১০ দিন আগেই ভোট দিয়ে ফেলেছেন। তাও আবার নিজের বাড়ি থেকেই। সেই বৃদ্ধা ছাড়া একই ওয়ার্ডের আরও ছজন এদিন ভোট দান করেছেন। তাঁদের সবার বয়স ৮০ বছরের উর্ধ্বে। আসলে এবার নির্বাচন কমিশন জানিয়েছিল, ৮০ বছরের বেশি বয়স্ক, অসুস্থ ব্যক্তিরা বাড়ি থেকেই পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে ভোটদান করতে পারবেন। আর তাই এদিন ঝড়গ্রাম বিধানসভার সাতজন বয়স্ক ভোটার ভোটদানের সুযোগ পেলেন নির্ধারিত সময়ের আগেই। ৮২ বছরের বাসন্তী নিজের ঘরে বসেই ভোট দান করলেন। সেই সময় তাঁর পরিবারের কারও ওই ঘরে যাওয়ার অনুমতি ছিল না। পোস্টাল ব্যালট সিল করা খামে ভরে নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধিরা নিয়ে গেলেন। পুরো প্রক্রিয়ার ভিডিও করে রাখল কমিশন। পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, বাসন্তী ঠিকমতো হাঁটাচলা করতে পারেন না। ফলে বুথ পর্যন্ত যাওয়া তাঁর পক্ষে সম্ভব ছিল না। নির্বাচন কমিশন এবার বয়স্কদের বাড়ি থেকে ভোট দেওয়ার সুবিধা দিচ্ছে। এটা জানতে পারার পরই বাসন্তীর পরিবার কমিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করে। ঝাড়গ্রাম বিধানসভায় ২৭ মার্চ প্রথম দফায় ভোটদান পর্ব চলবে। নির্বাচন কমিশনের ৮৬টি টিম আগামী এক সপ্তাহ ৮০ বছরের বেশি বয়স্কদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটদান পর্ব সারবে। ঝাড়গ্রাম জেলায় ৫৭১৫ জন বয়স্ক ভোটার বাড়ি থেকে ভোট দান করার জন্য কমিশনের কাছে আবেদন জানিয়েছেন।
    Published by:Suman Majumder
    First published: