• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • Dengue in West Bengal: জ্বর দিয়ে শুরু, ধরা পড়ল ডেঙ্গি! হাওড়ার শিশুমৃত্যুতে তুমুল আতঙ্ক, ছোটদের সাবধানে রাখুন...

Dengue in West Bengal: জ্বর দিয়ে শুরু, ধরা পড়ল ডেঙ্গি! হাওড়ার শিশুমৃত্যুতে তুমুল আতঙ্ক, ছোটদের সাবধানে রাখুন...

ডেঙ্গির আতঙ্ক (ফাইল ছবি)

ডেঙ্গির আতঙ্ক (ফাইল ছবি)

Dengue in West Bengal: জানা গিয়েছে, হাওড়া পুর এলাকার ২৪ ওয়ার্ডের বাসিন্দা ওই শিশুর নাম রিয়া চট্টোপাধ্যায়। তাঁর বয়স ৮ বছর। ওই শিশুর পরিবার সূত্রে খবর, গত ২১ অক্টোবর থেকে জ্বরে আক্রান্ত হয়েছিল রিয়া। ২৩ তারিখ রক্তপরীক্ষা করে জানা যায়, ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়েছে সে।

  • Share this:

    #হাওড়া: এক করোনায় রক্ষে নেই, দোসর ডেঙ্গি। অন্তত হাওড়া শহর এলাকার জন্য এ কথা যেন বলাই চলে। হুহু করে বাড়ছে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা। আর রবিবার হাওড়ার বাসিন্দা এক শিশুর মৃত্যুই হল ডেঙ্গির কারণে। হাওড়া শহরাঞ্চলের যে সমস্ত এলাকায় ডেঙ্গির প্রকোপ বেশি, সেখানকার বাড়ি বাড়ি গিয়ে বাসিন্দাদের রক্তের নমুনা সংগ্রহ করবে জেলা স্বাস্থ্য দফতর। কোভিডের পাশাপাশি এ বার ডেঙ্গি নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে এবং ডেঙ্গি আটকাতে এমনই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল জেলা স্বাস্থ্য দফতরের তরফে। কিন্তু কিছুতেই যেন রোখা যাচ্ছে না ডেঙ্গিকে। সেই সূত্রেই এবার মৃত্যু হল শিশুরও।

    আরও পড়ুন: 'কেউ পুজো করবে-কেউ হয়ত পান...', মন্দিরের 'কাছের' বার বন্ধ করল না সুপ্রিম কোর্ট!

    জানা গিয়েছে, হাওড়া পুর এলাকার ২৪ ওয়ার্ডের বাসিন্দা ওই শিশুর নাম রিয়া চট্টোপাধ্যায়। তাঁর বয়স ৮ বছর। ওই শিশুর পরিবার সূত্রে খবর, গত ২১ অক্টোবর থেকে জ্বরে আক্রান্ত হয়েছিল রিয়া। ২৩ তারিখ রক্তপরীক্ষা করে জানা যায়, ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়েছে সে। এরপর ২৪ তারিখ হাওড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল। রবিবার সকালে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। ঘটনার কথা জানাজানি হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

    আরও পড়ুন: স্বস্তির জায়গাতেই প্রকট অস্বস্তি, বড় ভাঙন BJP-তে! পুরভোটের আগেই TMC-র উচ্ছ্বাস

    এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে জমে উঠেছে ক্ষোভও। পরিস্থিতি বুঝেই রাজ্যের মন্ত্রী তথা হাওড়ার তৃণমূল নেতা অরূপ রায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন। এলাকাবাসীদের দাবি, শুধু হাওড়া পুরসভার ২৪ নম্বর ওয়ার্ডেই বর্তমানে ডেঙ্গি আক্রান্ত ২৫-৩০ জন। এলাকার জমা জল পরিষ্কার বা মশার বংশ নষ্ট করতেও প্রশাসনের তরফে তেমন কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয় না বলে অভিযোগ।

    জেলা প্রশাসন সূত্রের খবর, কিছুদিন আগে পর্যন্তও হাওড়া পুরসভার ৩১ ও ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা তুলনামূলক ভাবে অন্য ওয়ার্ডগুলির চেয়ে অনেকটাই বেশি। কিন্তু বর্তমানে সেই তালিকায় যোগ দিয়েছে ২৪ নম্বর ওয়ার্ডও। সেই কারণে ওই সমস্ত এলাকার বিভিন্ন ক্লাবে ও পুরসভার অফিসে রক্ত পরীক্ষার শিবিরও খোলা হয়েছে। কিন্তু তাতেও আটকানো যাচ্ছে না ডেঙ্গির প্রভাব।

    আরও পড়ুন: BJP-র 'পুরস্কারেও' অনড়, জল্পনা সত্যি করে আজই অভিষেকের হাত ধরে তৃণমূলে রাজীব?

    প্রসঙ্গত, ডেঙ্গির বাহক এডিস ইজিপ্টাই শ্রেণির স্ত্রী মশারা সাধারণত দিনের বেলাতেই কামড়ায়। ওই মশার কামড় থেকেই ডেঙ্গির সংক্রমণ ছড়ায়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বেশির ভাগ মানুষের শরীরে ডেঙ্গির জীবাণু প্রবেশ করলেও সামান্য জ্বর, মাথাব্যথা ও সর্দি-কাশির বেশি কিছু হয় না। কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রেই তা হয়ে উঠতে পারে প্রাণঘাতী। তবে, শুধু হাওড়া নয়, কলকাতা, হুগলি, নদীয়ার মতো জেলাতেই ক্রমেই বাড়ছে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা।

    Published by:Suman Biswas
    First published: