সিভিক ভলেন্টিয়ারের হাতে আক্রান্ত ৭০ বছরের প্রৌঢ়

Representative Image

অভিযোগ পুলিশের হয়ে কাজ করার সুবাদে দীর্ঘদিন ধরে সুরজিৎ এলাকার বিভিন্ন মানুষের ওপর অত্যাচার করেছে |

  • Share this:

#হাওড়া: চাহিদা মতো টাকা না দেওয়ায় এক যুবকের হাতে আক্রান্ত হতে হল প্রৌঢ়কে | অভিযোগের তীর হাওড়া সিটি পুলিশের এক  সিভিক ভলেন্টিয়ার সুরজিৎ দে'র  বিরুদ্ধে | মারধরে গুরুতর আহত ও আশঙ্কা জনক অবস্থায়  কলকাতার এক সরকারি হাসপাতালে ভর্তি প্রৌঢ় | ঘটনাস্থল হাওড়া থানা একালের  চিন্তামণি দে রোডের | অভিযোগ, ঘটানোর পর পুলিশ এলে অভিযুক্ত সুরজিৎকে আটক করলেও পরে তাকে আবার ছেড়ে দেওয়া হয় | অভিযোগ পুলিশের হয়ে কাজ করার সুবাদে দীর্ঘদিন ধরে সুরজিৎ এলাকার বিভিন্ন মানুষের ওপর অত্যাচার করেছে |

শুক্রবার সন্ধ্যায় আহত সমীর বরণ বোস তার বাড়ি থেকে বেরিয়ে এলাকায় পায়চারি করছিলেন | সেই সময় সুরজিৎ মদ্যপ অবস্থায় সমীর বাবুকে কটূক্তি করে এবং তার কাছ থেকে টাকা চায়৷ টাকা দিতে রাজি না হাওয়ায় সমীরবাবুকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয় | তখন সমীরবাবু চেঁচামেচি করতেই তার ওপর হামলে পরে সুরজিৎ৷ পরে যাওয়া সমীর বাবুকে বারংবার আঘাত করতে থাকে সে৷ স্থানীয় মানুষের বক্তব্য অনুযায়ী, চেঁচামেচির আওয়াজ পেয়ে সমীরবাবুকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে হাওড়া হাসপাতালে ও পরে কলকাতা sskm এ ভর্তি করা হয় |  সমীরবাবুর বাম চোখ ও মস্তিষ্কে গুরুতর আঘাত রয়েছে৷  মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন তিনি |

পরিবারের অভিযোগে শনিবার দুপুরে অভিযুক্ত সুরজিৎকে গ্রেফতার করে হাওড়া থানার পুলিশ | তবে প্রশ্ন উঠছে দীর্ঘদিন ধরে সিভিক ভলেন্টিয়ার হাওয়ায় সাধারণ মানুষের ওপার অত্যাচার করলেও পুলিশ কোনোদিন তার বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ নেয়নি | একজন ৭০ ছুঁই ছুঁই পৌড়র উপর  এহন অত্যাচারের বিরুদ্ধে একত্রিত হয়েছেন এলাকার মানুষ | এই ঘটনায় পুলিশ জানিয়েছে আমরা অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছি, সঠিক তদন্ত হবে ৷ পুলিশের কর্মী হলেও তার বিরুদ্ধে যাবতীয় অপরাধমূলক কাজ কর্মের অভিযোগ থাকলে তাও খতিয়ে দেখা হবে |

Published by:Pooja Basu
First published: