• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • রাজ্যে নিরাপদ স্থানে নেওয়া হল হাজার হাজার মানুষকে, কয়েকঘণ্টা পরেই শুরু হবে বৃষ্টি

রাজ্যে নিরাপদ স্থানে নেওয়া হল হাজার হাজার মানুষকে, কয়েকঘণ্টা পরেই শুরু হবে বৃষ্টি

সর্বত্র প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকে সতর্ক করা হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।

সর্বত্র প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকে সতর্ক করা হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।

সর্বত্র প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকে সতর্ক করা হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।

  • Share this:

    #‌কলকাতা:‌ উপকূল থেকে এখনও বেশ কিছুটা দূরে রয়েছে ঘূর্ণিঝড় আমফান। কিন্তু সেই ঝড়ের দাপটে মঙ্গলবার দুপুর থেকেই শুরু হতে পারে বৃষ্টি। এমনই সতর্কবার্তা দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। আর সেই কারণেই আগেভাগে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার তাগিদে কাজ শুরু করে দিয়েছে প্রশাসন। প্রশাসনিক পদক্ষেপ হিসাবে গতকাল সাড়ে চারটে পর্যন্ত ‌দক্ষিণ ২৪ পরগণায় নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে প্রায় ৪০ হাজার মানুষকে।

    সর্বত্র প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকে সতর্ক করা হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। ইতিমধ্যে প্রায় সমস্ত মৎসজীবী ফিরে এসেছেন। ঘূর্নিঝড়ের নিরাপদ আশ্রয়গুলিকে করোনা সংক্রমণ রুখতে স্যানিটাইজ করা হয়েছে। আশ্রয়স্থলে রয়েছে স্যানিটাইজার, মাস্ক, পিপিই থেকে সবকিছুই। সেখানেই আপাতত ঝড় রুখতে আশ্রয় নেবেন অসংখ্য মানু্ষ। স্যাটেলাইট ফোন, হ্যাম রেডিও রাখা হয়েছে, যাতে প্রতিকূল পরিস্থিতিতেও যোগাযোগ করা যায়। জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী রয়েছে কাকদ্বীপ, নামখানা, পাথরপ্রতিমা ও গোসাবা এলাকায়। রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী রয়েছে ঘোড়ামার, মৌসুনি দ্বীপে। গ্রাম পঞ্চায়েত, ব্লক ও সাব ডিভিশন ধরে কন্ট্রোল রুম তৈরি করা হয়েছে। এককথায় দক্ষিণ ২৪ পরগণার বিশাল এলাকা জুড়ে আমফান মোকাবিলায় শুরু হয়েছে এক যুদ্ধ।

    গতকালই মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিক বৈঠকে বলেছেন, সরকার ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় সমস্ত রকম ব্যবস্থা নিচ্ছে। ঘূর্ণিঝড়ের পরেও যাতে সাধারণ মানুষ নিরাপদে থাকতে পারেন, প্রশাসন সেই ব্যবস্থা চালাচ্ছেন বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: