Home /News /south-bengal /
একদিনে আক্রান্ত ২৪ জন, জেলায় আক্রান্তের চার ভাগের এক ভাগই বর্ধমান শহরের বাসিন্দা

একদিনে আক্রান্ত ২৪ জন, জেলায় আক্রান্তের চার ভাগের এক ভাগই বর্ধমান শহরের বাসিন্দা

শহরের সব এলাকায় যে নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে তা নয়, তবুও প্রতিদিন যেভাবে আক্রান্তের হদিশ মিলছে তা চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

  • Share this:

#বর্ধমান: বর্ধমান শহরে ফের একদিনে চব্বিশ জন করোনা আক্রান্ত হলেন। গত কয়েক দিনের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, জেলায় যতজন করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন তার চার ভাগের এক ভাগ শুধুমাত্র বর্ধমান শহর এলাকারই বাসিন্দা। জেলার অন্যান্য কিছু প্রান্তে সংক্রমণ কিছুটা কমলেও বর্ধমান শহরে তা সমানভাবেই বাড়তে থাকায় উদ্বিগ্ন বাসিন্দারা।তাঁরা বলছেন, শহরের সব এলাকায় যে নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে তা নয়, তবুও প্রতিদিন যেভাবে আক্রান্তের হদিশ মিলছে তা চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। শীত বাড়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে সংক্রমণ আরও বাড়বে বলে মনে করছেন অনেকেই।

গত চব্বিশ ঘন্টায় পূর্ব বর্ধমান জেলায় 95 জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে 24 জনই বর্ধমান শহর এলাকার বাসিন্দা।এছাড়াও কালনা পুরসভা এলাকায় একজন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। কাটোয়া পৌরসভা এলাকায় দুজন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। আউশগ্রাম এক নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন দুজন।উদ্বেগজনক পরিস্থিতি ভাতারে। সেখানে একদিনে দশ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। বর্ধমান শহরের পাশাপাশি বর্ধমান শহর লাগোয়া এলাকায় করোনার সংক্রমণ উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। বর্ধমান এক নম্বর ব্লকের করোনা আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ জন।

বর্ধমান দু'নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন চারজন। গলসি এক নম্বর ব্লকে গত চব্বিশ ঘন্টায় সাতজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। জামালপুর ব্লকের দুজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কালনা এক নম্বর ব্লকের আক্রান্ত হয়েছেন একজন। কালনা দু নম্বর ব্লকে আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ জন। কাটোয়া এক নম্বর ব্লকের তিনজন আক্রান্ত হয়েছেন। কাটোয়ার দু'নম্বর ব্লকে আক্রান্ত হয়েছেন একজন। কেতুগ্রাম এক নম্বর ব্লক, মন্তেশ্বর ব্লকেও একজন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কেতুগ্রাম দু নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন দুজন। মেমারি এক নম্বর ব্লকে দু জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মেমারি দু'নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ জন। মঙ্গলকোট ব্লকেও পাঁচ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। রায়না এক নম্বর ব্লকে তিনজন ও রায়না দু'নম্বর ব্লকে দুজন করোননা আক্রান্ত হয়েছেন।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Coronavirus

পরবর্তী খবর