Mamata Banerjee: 'বিজেপির টাকায় সংখ্যালঘু ভোট ভাগ করতে এসেছে', নাম না করে ISF-কে আক্রমণ মমতার

Mamata Banerjee: 'বিজেপির টাকায় সংখ্যালঘু ভোট ভাগ করতে এসেছে', নাম না করে ISF-কে আক্রমণ মমতার

পাথরপ্রতিমায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি-ফেসবুক

নাম না করে আইএসএফ-কে তোপ দাগলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • Share this:

    #পাথরপ্রতিমা: ২৪ ঘণ্টা, ২ জেলা, চার জনসভা। শেষবেলায় এটাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রচারসূচি। সেই চার জনসভার প্রথমটি পাথরপ্রতিমার কলেজ মাঠে। সেখান থেকেই নাম না করে আব্বাস সিদ্দিকির দল আইএসএফ-কে তোপ দাগলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    আজ পাথরপ্রতিমা থেকে  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, " বিজেপি সঙ্গে ডিল করে একটা নতুন দল এসেছে। বিজেপি থেকে গজিয়েছে হঠাৎ করে। বিজেপি টাকা দিয়ে তাদের পাঠিয়েছে সংখ্যালঘু ভোট ভাগ করতে। "

    সুন্দরবন জেলা

    দিন কয়েক আগেই বিজেপির ইশতেহারে সুন্দরবন জেলার কথা বলা হয়েছে। মমতার কথায় এল সেই প্রসঙ্গ। মমতা এদিন বলেন, "পাথরপ্রতিমা আমার ধ্যানে রয়েছে। সুন্দরবন আলাদা জেলা হবে আগেই বলেছি। নতুন করে কারো বলার অপেক্ষা রাখে না।"

    উন্নয়ন প্রসঙ্গে

    কথায় কথায় এল উন্নয়ন প্রসঙ্গ, যে তাসে লাখো মানুষের মন জয় করতে চাইছেন মমতা।  তিনি বলেন,  "এখানে যাতায়াতের সমস্যা ছিল। কয়েকশো কোটি টাকা ব্যবহার করে সেতু হয়েছে। লক্ষ লক্ষ মানুষ উপকৃত হয়েছে। ১৭টি নতুন সেতু হয়েছে সুন্দরবনে। ৫৩০০ কিলোমিটারের বেশি রাস্তা হয়েছে সুন্দরবনে। আড়াই হাজার টিউবওয়েল হয়েছে সুন্দরবনে।"

    মমতার প্রতিশ্রুতি আগামী দিনে চলবে সবুজসাথীর মতো প্রকল্প। বিনামূল্যে বাড়িতে পৌঁছবে রেশন। তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, "আমি বিজেপি পার্টির মতো ধান্দাবাজ নই, দাঙ্গাবাজ নই। আমি মানুষের জন্য কাজ করি। সবুজসাথীর সাইকেল পাবে ছেলেমেয়েরা। ছাত্রছাত্রীরা স্মার্টফোন পাবেন। দরজায় দরজায় রেশন পৌঁছে দেবো। কৃষক বন্ধুরা ভবিষ্যতে ১০ হাজার টাকা করে পাবে।"

    আমফানের টাকা নিয়ে বিজেপিকে মমতার তোপ-

    আমফানে বিজেপি টাকাই দেয়নি। পাশে ছিল না। বুলবুলেও ছিল না। নরেন্দ্র মোদি মিথ্যেবাদী। অমিত শাহ হোদল কুত কুত নেতা। আমফানে ১৯ লক্ষ লোককে বাঁচিয়েছিলাম। থরথর করে কাঁপছিল নবান্ন। সারারাত জেগে পাহাড়া দিয়েছি। বুলবুলের সময়ে ২০ লক্ষ মানুষের ক্ষতি হয়েছিল। দুর্গতের সাহায্যে কোনও কার্পণ্য করিনি। ঝড়ে আগে ১৯ লক্ষ লোককেবলল ১ হাজার টাকা দিয়ে গেলাম। কার টাকা? ওটা তো রাজ্যের প্রাপ্য টাকা। এক টাকাও দেয়নি আসলে। এত বড় যজ্ঞে একটা দুটো ভুল হতে পারে। আমরা সাত হাজার কোটি টাকা দিয়েছি আমফানে। আরও ভাঙন বাঁধাতে হবে, জেটির কাজ করতে হবে। করে চলেছি। সুনামি যখন হয়েছিল, কী অবস্থা হয়েছিল। আমি আপনাদের জন্য রিলিফ সেন্টার করে দিয়েছি। আমি চোর আমি ডাকাত আমি খুনি? আমি মানুষকে জীবন দিয়ে ভালোবাসি। পিএম কেয়ারের নামে টাকা তুললে কোথায় গেল টাকা?

    সরকারি কর্মীদের প্রতিশ্রুতি প্রসঙ্গে

    ইশতেহারে সরকারি কর্মীদের জন্য সপ্তম পে কমিশনের কথা বলেছে বিজেপি। সেই প্রসঙ্গে মমতা বললেন,  "ত্রিপুরায় ক্ষমতায় এসে গ্র্যাচুয়িটি, পিএফ বন্ধ করে দিয়েছে সরকারি চাকরিতে। আসামে ১৪ লক্ষ মানুষকে ঘরছাড়া করেছে।"

    পাথরপ্রতিমার সভা মমতা শেষ করলেন আত্মবিশ্বাস দেখিয়েই। বললেন, "মিডিয়াকে কিনে নেওয়ার চেষ্টা করছে। আমি মানুষের ব্রিগেড চিনি। আপনাদের দেখে যদি বুঝতে না পারি তা হলে রাজনীতি করা বৃথা।"

    Published by:Arka Deb
    First published:

    লেটেস্ট খবর