'অ্যাম্বুল্যান্সে বিজেপি, সিপিএম দেখে লাভ নেই', হাত জোড় করে অনুরোধ অভিষেকের

'অ্যাম্বুল্যান্সে বিজেপি, সিপিএম দেখে লাভ নেই', হাত জোড় করে অনুরোধ অভিষেকের

অভিষেকের রোড শো চলাকালীন ঢুকে পড়ে একাধিক অ্যাম্বুল্যান্স৷

এ দিন দলীয় প্রার্থী পান্নালাল হালদারের সমর্থনে ডায়মন্ড হারবারে রোড শো করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷

  • Share this:

    #ডায়মন্ড হারবার: অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের রোড শো৷ হাজার হাজার মানুষের ভিড়৷ কিন্তু তার মধ্যেই হঠাৎ ভিড়ের মধ্যে আসতে থাকল একের পর এক অ্যাম্বুল্যান্স৷ কিন্তু বিজেপি-ই চক্রান্ত করে রোড শো-এর জন্য নির্দিষ্ট রাস্তায় অ্যাম্বুল্যান্স ঢুকিয়েছে বলে পথ ছাড়তে নারাজ ছিলেন তৃণমূলের কর্মী- সমর্থকরা৷ অ্যাম্বুল্যান্সকে পথ করে দেওয়ার জন্য অবশ্য হাত জোড় করে অনুরোধ করলেন তৃণমূল সাংসদ৷ তার পরেই নিয়ন্ত্রণে আসে পরিস্থিতি৷

    এ দিন দলীয় প্রার্থী পান্নালাল হালদারের সমর্থনে ডায়মন্ড হারবারে রোড শো করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তিনি আবার ওই এলাকার সাংসদও৷ ফলে অভিষেকের রোড শো ঘিরে উন্মাদনা ছিল তুঙ্গে৷ রোড শো-এর পর বক্তব্যও রাখেন অভিষেক৷ ডায়মন্ড হারবার স্টেশন সংলগ্ন ১১৭ নম্বর জাতীয় সড়কের উপরেই বিশেষ প্রচার গাড়িতে দাঁড়িয়ে তৃণমূল সাংসদ যখন বক্তব্য রাখছেন, তখনই ওই পথে ঢুকে পড়ে দু'টি অ্যাম্বুল্যান্স৷ তা দেখেই অ্যাম্বুল্যান্সগুলিকে পথ করে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন অভিষেক৷ তৃণমূল সাংসদ সমর্থকদের উদ্দেেশ বলেন, 'বিজেপি আর আমাদের মধ্যে এটাই পার্থক্য৷ দিলীপ ঘোষের সভায় অ্যাম্বুল্যান্স ঢুকলে বলে ঘুরে যাও৷ আর আমরা বলি পথ করে দাও, একটা মানুষের জীবন আমাদের কাছে মণিমুক্তোর মতো৷ আমাদের নিজেদের একটু অসুবিধা হবে কী আছে, আমি পাঁচ মিনিট বক্তৃতা থামাবো৷'

    কিন্তু এর কয়েক মিনিটের মধ্যেই উল্টো দিক থেকে আরও দু'টি অ্যাম্বুল্যান্স চলে আসে৷ অভিষেক ফের জায়গা ছেড়ে দিতে বললেও তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা অভিযোগ করেন, অ্যাম্বুল্যান্সে কোনও রোগী নেই৷ ইচ্ছা করে ফাঁকা অ্যাম্বুল্যান্স পাঠিয়ে আসলে তৃণমূলের কর্মসূচিতে বাধা দিতে চাইছে বিজেপি৷ কর্মী, সমর্থকদের শান্ত করতে অভিষেক বলেন, 'অ্যাম্বুল্যান্সে বিজেপি, সিপিএম দেখে লাভ নেই৷ ও করুক গে৷ এ সব ভোট বাক্সে মানুষ জবাব দিয়ে দেবে৷ খালি গাড়ি হলেও ছেড়ে দাও৷ আমি হাতজোড় করে বলছি যেতে দিন৷ আমার অনেক ধৈর্য, দরকার হলে কাল সকাল পর্যন্ত দাঁডিয়ে থাকব৷' এর পর অবশ্য নির্বিঘ্নেই বক্তব্য শেষ করেন অভিষেক৷

    ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল বিধায়ক দীপক হালদার বিজেপি-তে যোগ দিয়েছেন৷ ডায়মন্ড হারবার থেকে এ বার বিজেপি-র প্রার্থীও দীপক হালদারই৷ এ দিন প্রচারে বেরিয়ে আক্রান্তও হয়েছেন তিনি৷ অভিষেক অবশ্য দলের প্রাক্তন বিধায়ককে 'ছোট গদ্দার' বলে কটাক্ষ করেন৷ অভিষেকের অভিযোগ, তৃণমূলে থাকাকালীনও সাধারণ মানুষের পাশে থাকতেন না দীপক হালদার৷ একই সঙ্গে অভিষেকের অভিযোগ, তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি বলেই দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার ৩১টি আসনে তিন দফায় ভোট করানো হচ্ছে৷ অভিষেকের আরও দাবি, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার সব আসনেই জিতবে তৃণমূলই৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: