' খেলনা' পিস্তল নিয়ে কোন্নগরের স্কুলে ২ যুবক, শাসানি প্রিন্সিপালকে !

স্কুল চলাকালীনই পিস্তল নিয়ে সোজা প্রিন্সিপালের ঘরে দুই যুবক। ডিআরডিও-র জুনিয়র সায়েন্টিস্ট পরিচয় দিয়ে শিক্ষকদের লাগাতার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 09, 2019 01:17 PM IST
' খেলনা' পিস্তল নিয়ে কোন্নগরের স্কুলে ২ যুবক, শাসানি প্রিন্সিপালকে !
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 09, 2019 01:17 PM IST

#কোন্নগর: স্কুল চলাকালীনই পিস্তল নিয়ে সোজা প্রিন্সিপালের ঘরে দুই যুবক। ডিআরডিও-র জুনিয়র সায়েন্টিস্ট পরিচয় দিয়ে শিক্ষকদের লাগাতার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ। এক শিক্ষককে স্কুল থেকে বরখাস্ত করার জন্য চাপ দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। কোন্নগরের বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের ঘটনায় ফের প্রশ্নের মুখে স্কুলের নিরাপত্তা।

মঙ্গলবার নিজেদের ডিআরডিও-র জুনিয়র সায়েন্টিস্ট পরিচয় দিয়ে সোজা প্রিন্সিপালের ঘরে ঢুকে যান দুই যুবক। প্রিন্সিপালকে তাঁরা জানান, স্কুলের দুই শিক্ষিকা ও দুই ছাত্রের নামে ওয়ারেন্ট আছে। স্কুলের কম্পিউটার থেকে প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত তথ্য জানার চেষ্টার অভিযোগ তাঁদের বিরুদ্ধে। পিস্তল উঁচিয়ে ওই দুই যুবক বলেন, স্কুলের কম্পিউটার শিক্ষক নাসিমকে সরিয়ে দিতে হবে। কম্পিউটারের হার্ড ডিস্ক বদলে ফেলতে হবে। যাঁদের নামে ওয়ারেন্ট বলে দাবি, তাঁদের মোবাইলের সিমও বদলাতে হবে।

দুই তথাকথিত জুনিয়র সায়েন্টিস্টের এমন দাবিতে সন্দেহ হয় প্রিন্সিপালের। পুলিশে খবর দেন প্রিন্সিপাল। গ্রেফতার করা হয় ওই দুই যুবকের একজন অরিজি‍ৎ মেটেকে। অরিজিৎ আগে এই স্কুলেই শিক্ষকতা করতেন। তিন-চারবছর আগে স্কুল ছাড়েন। পুরোন পরিচয়ের সূত্রেই স্কুলে যাতায়াত ছিল। এখন চন্ডিতলার প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক অরিজিৎ। ধৃতের থেকে উদ্ধার ডিআরডিও জুনিয়র সায়েন্টিস্টের ভুয়ো পরিচয়পত্র। পুলিশের অনুমান, কম্পিউটার শিক্ষক নাসিমের উপর ব্যাক্তিগত আক্রোশ মেটাতেই এই কাণ্ড।

কয়েকদিন আগে বাঁকুড়ার এক স্কুলে শিক্ষক ও সহপাঠীর মারে ছাত্রমৃত্যুর অভিযোগ উঠেছিল। হাওড়ার একটি ইংরেজী মাধ্যম স্কুলেও সহপাঠীর সঙ্গে মারামারির জেরে পড়ুয়ার মৃত্যুর অভিযোগ ওঠে। বারবার স্কুলে এমন ঘটনা কেন?

First published: 01:16:59 PM Aug 09, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर