• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • মায়ের লিভারেই ১৮ ঘণ্টা অস্ত্রোপ্রচারের পর প্রাণ ফিরে পেল ২ বছরের শিশু রিজওয়ান !

মায়ের লিভারেই ১৮ ঘণ্টা অস্ত্রোপ্রচারের পর প্রাণ ফিরে পেল ২ বছরের শিশু রিজওয়ান !

টানা ১৮ ঘন্টা অস্ত্রোপচার শেষে মায়ের লিভার বসেছে খুদের শরীরে।

টানা ১৮ ঘন্টা অস্ত্রোপচার শেষে মায়ের লিভার বসেছে খুদের শরীরে।

টানা ১৮ ঘন্টা অস্ত্রোপচার শেষে মায়ের লিভার বসেছে খুদের শরীরে।

  • Share this:

#বারাসত: উত্তর ২৪ পরগনা বারাসতের বাসিন্দা রিজওয়ান আলী। জন্মের পর থেকেই যকৃতের মারণ রোগে শয্যাশায়ী ছিল এই একরত্তি। বিছানা ছেড়ে উঠতেই পারত না। চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যেতেই ধরা পরে অসুখ। বাইলারি আর্টেসিয়া। জন্মগত এই অসুখে সিরোসিস অফ লিভার বা লিভার একদম ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে লিভার পাল্টানো ছাড়া অর্থাৎ প্রতিস্থাপন ছাড়া কোন উপায় থাকেনা। তবে চিকিৎসকরা বলছেন, লিভারের এ অসুখকে এখন আর বিরল বলা চলে না। প্রতি ৮ থেকে ১২ হাজারে ১ জন শিশু এখন এই অসুখে আক্রান্ত। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, সাধারণত মল,মূত্রের রং দেখেই চেনা জানা যায় এই অসুখ। কিন্তু একদম ছোট বাচ্চার প্রস্রাবের রঙ অনেকেই ভালো করে বুঝতে না। আর তাতেই বাধে গন্ডগোল। যেমনটা হয়েছিল রিজওয়ানের বেলাতেও। প্রস্রাবের রং স্বাভাবিকের তুলনায় অত্যধিক গাঢ় হলুদ। মলের রং সাদা। বাইলারি আর্টেসিয়ায় শরীরে বাইল ডাক্ট সিস্টেম থাকে না, যার জন্যই লিভারের সমস্যা দেখা যায়। এই অসুখে গ্লাইকোজেন স্টোরেজ ডিজঅর্ডার দেখা যায়। ফলে লিভার, গ্লুকোজ ও গ্লাইকোজেন মেটাবলিজম পদ্ধতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। যে কারণে অস্বাভাবিক পরিমাণে গ্লাইকোজেন তৈরি হয় শরীরে।

লিভার অত্যধিক মাত্রায় বড় হয়ে গিয়েছিল রিজওয়ানের। লিভার প্রতিস্থাপন ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না। তাকে ভর্তি করা হয় ই এম বাইপাসে পাশে অ্যাপোলো হাসপাতালে।  চিকিৎসকদের টিম শিশুটিকে পরীক্ষা করে জানান লিভার প্রতিস্থাপন করতে হবে। যে টিমে ছিলেন ডা. মহেশ গোয়েঙ্কা, ডা. রামদীপ রে, ডা. সুমিত গুলাটি। অস্ত্রোপচারের খরচ ছিল ২৩ লক্ষ। এলাকার বিভিন্ন ক্লাব, সংগঠন, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা মিলিয়ে বেশ কিছু টাকা যোগাড় করে,তাও ওই বিপুল অংকের টাকার ধারে কাছে নয়।  চিকিৎসকরা সিদ্ধান্ত নেন, যে কোনো মূল্যে তারা লিভার প্রতিস্থাপনে অস্ত্রপচার করবেন। তাদের পারিশ্রমিক নেবেন না কেউই। কিন্তু লিভার কোথা থেকে  খুঁজে পাওয়া যাবে?

ছেলের এই অবস্থায় এগিয়ে আসে মা। ২৭ বছরের রিনা বিবি বলেন,“ছেলে তো আমারই একটা অংশ। ওর জন্য এটুকু করবো না।” চোখের জল মোছেন মা রিনাবিবি। টানা ১৮ ঘন্টা অস্ত্রোপচার শেষে মায়ের লিভার বসেছে খুদের শরীরে। অস্ত্রোপচারের পর টানা ২৫ দিন শিশুটিকে গভীর পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল। আপাতত সে সম্পূর্ণ সুস্থ। অ্যাপোলো হাসপাতাল গ্রুপের পূর্ব ভারতের সিইও রানা দাশগুপ্ত জানান,' বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার খরচ সত্যিই সবার পক্ষে দ দেওয়া সম্ভব হয় না,তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে আমরা মানবিকতার খাতিরে এবং চিকিৎসা বিজ্ঞানের স্বার্থে রোগীর পাশে দাঁড়াই। এই ছোট্ট শিশুর ক্ষেত্রে তার অন্যথা হয়নি। তাকে সুস্থ করে তোলা গেছে এটাই সবথেকে বড় প্রাপ্তি।' অস্ত্রোপচার করা লিভার ট্রান্সপ্লান্ট বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক রামদিপ রায় জানান,' দিল্লি মুম্বাই ব্যাঙ্গালুরুতে এ ধরণের অপারেশন অনেক বেশি হয় তবে কলকাতায় এই ধরনের অস্ত্রোপচার করতে পেরে আমি গর্বিত এই ছোট্ট শিশুকে যে পুনর্জন্ম দেওয়া গেছে, তা সত্যিই খুশির খবর।'

ABHIJIT CHANDA

Published by:Piya Banerjee
First published: