corona virus btn
corona virus btn
Loading

প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে দুই বিধায়ককে হুমকি ফোন! বর্ধমানে গ্রেফতার ২

প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে দুই বিধায়ককে হুমকি ফোন! বর্ধমানে গ্রেফতার ২
Representative Image

আধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে অন্যের মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে পূর্ব বর্ধমান জেলায় শাসক দলের দুই বিধায়ককে ফোন করে খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছিল

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: আধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে অন্যের মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে পূর্ব বর্ধমান জেলায় শাসক দলের দুই বিধায়ককে ফোন করে খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছিল। গত কয়েকদিন ধরে তদন্ত চালানোর পর বর্ধমান জেলা পুলিশের কাছে এই তথ্য এসেছে। ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের একজনের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্রও মিলেছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। এই ঘটনায় আর কারা কারা জড়িত, কী উদ্দেশ্যে তারা বিধায়কদের ফোন করে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছিল তা জানার জন্য ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।

কয়েকদিন আগে বর্ধমান উত্তরের বিধায়ক নিশীথ মালিক ও মেমারির বিধায়ক নার্গিস বেগমকে ফোন করে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়। নার্গিস বেগমের কাছ থেকে ওই ফোনে মোটা টাকা দাবি করা হয় বলেও অভিযোগ। ঘটনার পর দুই বিধায়ক অভিযুক্তদের মোবাইল নাম্বার-সহ মেমারি ও শক্তিগড় থানায় লিখিত অভিযোগ জানান। শাসক দলের দুই বিধায়ককে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার ঘটনায় জেলা জুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। অভিযুক্তদের হদিশ পেতে জোরদার তদন্ত শুরু করে পুলিশ। মোবাইল নম্বরের সূত্র ধরে মোবাইল টাওয়ারের লোকেশন দেখে ফোনের মালিককে আটক করে পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই স্পুফ কলের বিষয়টি সামনে আসে।

এক তদন্তকারী পুলিশ অফিসার জানান, জিজ্ঞাসাবাদে দেখা যায় ফোনের মালিক ঘটনার সঙ্গে যুক্ত নন। তাঁর মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে স্পুফিংয়ের মাধ্যমে এই হুমকি ফোন করেছিল অন্যরা। এরপর তাদের একজনকে গ্রেফতার করে  জেরা করে পুলিশ।  এই ঘটনায় আরও তিনজনের যুক্ত থাকার প্রমাণ মেলে। স্মার্ট ফোনে সফটওয়্যার ইনস্টল করে  একটি হোটেল থেকে তারা এই ফোনগুলি করেছিল বলে পুলিশ জানতে পেরেছে। তাদের মধ্যে বর্ধমান শহর থেকে আরও একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে শুক্রবার বর্ধমান আদালতে তোলা হয়। ধৃতদের বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করে বাকি জড়িতদের গ্রেফতার করার চেষ্টা চালানো হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

তদন্তকারী পুলিশ অফিসাররা জানিয়েছেন, স্মার্টফোনে সফটওয়্যার ডাউনলোড করে এই কল করা হচ্ছে। তার মাধ্যমে অন্যের নম্বর ব্যবহার করে ফোন করা যায়। যাকে বলা হয় স্পুফিং। এক্ষেত্রে তেমনটাই হয়েছে। এর আগেও একই ভাবে পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের  সহ সভাধিপতি দেবু টুডুকে খুনের হুমকি দেয়া হয়েছিল।

SARADINDU GHOSH

Published by: Rukmini Mazumder
First published: August 28, 2020, 4:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर