Home /News /south-bengal /
Rape Case: ধর্ষণের পরও ধর্ষকের অত্যাচার! ছিন্নভিন্ন জীবন বয়ে বেড়াচ্ছেন গোসাবার যুবতী

Rape Case: ধর্ষণের পরও ধর্ষকের অত্যাচার! ছিন্নভিন্ন জীবন বয়ে বেড়াচ্ছেন গোসাবার যুবতী

বছর উনিশের মেয়েটি কখনো রাস্তায়,আত্মীয় বাড়িতে নিজের সম্মান বাঁচানোর জন্য ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

  • Share this:

#গোসাবা:

ধর্ষণের পরও রেহাই দিচ্ছে না ধর্ষক। শারীরিক অত্যাচারের পর এবার শুরু হয়েছে মানসিক নির্যাতন। আর তাতেই অতিষ্ঠ এক যুবতী। ধর্ষকের অত্যাচারে তাঁর জীবন ছিন্নভিন্ন। বছর উনিশের প্রথম বর্ষের ছাত্রী। বেশ কয়েকবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন। বাড়িতে থাকলে জানালা-দরজা বন্ধ রাখতে হয়। নিরুপায় বাবা-মা। লোকলজ্জার ভয়ে মেয়েকে অন্যত্র পাঠিয়ে দিতে বাধ্য হয়েছেন। মেয়েটির কথা-'আমার শরীর ,জীবন শেষ করে দিয়েছে একটা শয়তান'। মন শক্ত করে যদিও পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন মেয়েটি। তাতে লাভ হয়নি।

ঘটনাস্থল দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপ। মেয়েটির বাড়ি গোসাবা। বাবা-মা পড়াশোনার জন্য মেয়েটিকে ২০১৮ সালে কাকদ্বীপের একটি স্কুলে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি করেছিলেন। ২০২০ সালে ঢোলা থানা এলাকার ১৪নম্বরের বছর চব্বিশের সূর্যকান্ত বেরা নামের এক যুবক মেয়েটিকে ভালবাসার ফাঁদে ফেলে বলে অভিযোগ। সূর্যকান্ত পড়াশোনার জন্য কাকদ্বীপ স্টেশনের কাছে থাকত। একদিন মেয়েটিকে সূর্যকান্ত তাঁর ভাড়া ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ করেছে মেয়েটি যুবতীর অভিযোগ, সেই সময় সূর্যকান্ত ওই ঘটনার দৃশ্য মোবাইল বন্দি করেছিল। তার পর থেকে সূর্যকান্ত ওই মেয়েটিকে ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে একাধিক বার ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ। কলেজে প্রথম বর্ষে ভর্তি হওয়ার পর সূর্যকান্ত যুবতীকে ভয় দেখিয়ে বাড়ি থেকে টাকা আনার জন্য চাপ দেয় বলে অভিযোগ। মেয়েটি যতটুকু সম্ভব টাকা নিয়ে ছেলেটিকে দিয়েছিল। তার পর আরও টাকার চাপ দেয় সূর্যকান্ত। ওই যুবতী তাতে রাজি হয়নি। তারপর মেয়েটির বিভিন্ন পরিচিতদের কাছে ওই ভিডিওটি পৌঁছে দেওয়ার হুমকি দিতে থাকে সূর্যকান্ত। অভিযোগ এমনই।

ভয়ে মেয়েটি কলেজ ছেড়ে দিলে ফেসবুকে ফেক একাউন্ট খুলে ওই যুবক তাঁরর অশ্লীল ছবি এবং ভিডিও পোস্ট করতে থাকে বলে অভিযোগ। তাতে মেয়েটির মোবাইল নম্বরে ফোন, মেসেজ করে ওই যুবক নানাভাবে হেনস্থা করতে থাকে। বিষয়টি চারদিকে জানাজানি হয়ে যাওয়ার পর নির্যাতিতার বাবা, সুন্দরবন কোস্টাল থানাতে এপ্রিল মাসে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগ পাওয়ার পর মেয়েটির বাড়িতে বিভিন্নভাবে হুমকি আসে ছেলেটির পক্ষ থেকে। আজও বছর উনিশের মেয়েটি কখনো রাস্তায়,আত্মীয় বাড়িতে নিজের সম্মান বাঁচানোর জন্য ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এক বছরের বেশি সময় ধরে। এখনও পুলিশ বিষয়টি নিয়ে কোনও পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Kakdwip, Rape, Rape Case

পরবর্তী খবর