• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • Covid 19: কালনার সংশোধনাগারে ১৫ আবাসিক করোনা আক্রান্ত! উদ্বেগ চরমে

Covid 19: কালনার সংশোধনাগারে ১৫ আবাসিক করোনা আক্রান্ত! উদ্বেগ চরমে

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

Coronavirus: পূর্ব বর্ধমানের কালনা সংশোধনাগারে ৭৪ জন বিচারাধীন আবাসিক রয়েছেন। সম্প্রতি তাঁদের প্রত্যেকের করোনা পরীক্ষা করা হয়।

  • Share this:

#কালনা: এ বার সংশোধনাগারেও ঢুকে পড়ল করোনা সংক্রমণ (Covid 19)। কালনা মহকুমা সংশোধনাগারে ১৫ জন বন্দি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। সংশোধনাগারের মতো আবদ্ধ স্থানে করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ায় আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। যদিও সংশোধনাগারের মধ্যেই একটি অস্থায়ী হাসপাতাল তৈরি করে চিকিৎসা শুরু হয়েছে জেলের আবাসিকদের। এমনিতেই পূর্ব বর্ধমানের কালনা শহরে করোনা সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকায় দিশেহারা  অবস্থা সাধারণ মানুষের। সেই সংক্রমণের প্রকোপ জেলে পড়তই। তবে এক সঙ্গে ১৫ জন আক্রান্ত হয়ে পড়ায় সমস্যা আকারে অনেক বড় হয়েছে বলেই মত।

আরও পড়ুন -   করোনা আক্রান্ত জেনেও পড়ুয়াকে ক্য়াম্পাসে ডাকল রবীন্দ্রভারতী, শুরু বিতর্ক

পূর্ব বর্ধমানের কালনা সংশোধনাগারে ৭৪ জন বিচারাধীন আবাসিক রয়েছেন। সম্প্রতি তাঁদের প্রত্যেকের করোনা পরীক্ষা করা হয়। তাতেই  ১৫ জনের করোনা পজিটিভ হয়েছে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। হঠাৎ করে এই সংশোধনাগারের বিচারাধীন আবাসিকদের করোনা পরীক্ষা করা হল কেন? সংশোধনাগার সূত্রে জানা গিয়েছে, মাঝে এক আবাসিক অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁর দেহে করোনার উপসর্গ ছিল। তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এর পরই সকলের অ্যান্টিজেন টেস্টের উদ্যোগ নেওয়া হয়। তাতেই আরও ১৪ জনের করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। তবে তাদের বেশিরভাগেরই কোনও উপসর্গ নেই। তাদের চিকিৎসার জন্য সংশোধনাগারের মধ্যেই বিশেষ হাসপাতাল খোলা হয়েছে।

আরও পড়ুন -   ডার্ক ওয়েবের হাতছানি পড়ুয়াদের সামনে, অনলাইনে ক্লাস নিয়ে আরও সতর্ক হতে পরামর্শ বিশেষজ্ঞের

সেখানে একজন করে ডাক্তার  ও নার্স রেখে বন্দিদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এ ছাড়া কালনা মহকুমায় একজন নার্স, এক জন চিকিৎসকও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। দ্রুত গতিতে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। সেই কারণেই, শুক্রবার কালনা মহকুমার সব বাজার হাট, ফেরিঘাটের দায়িত্বপ্রাপ্তদের নিয়ে মিটিং করেন মহকুমাশাসক সুরেশকুমার জগৎ। কালনার ৮, ১১, ১২, ১৮নং ওয়ার্ডকে কনটেনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হচ্ছে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। করোনার আগের দুটি ঢেউয়ে কালনা শহর ও তার আশপাশ এলাকায় প্রচুর সংখ্যক বাসিন্দা করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। এ বার যাতে সেই পরিস্থিতি তৈরি না হয়, তা নিশ্চিত করতে তৎপরতা বাড়াচ্ছে প্রশাসন। ফেরিঘাটে এবং নৌকায় যাতে শারীরিক দূরত্ব বজায় থাকে, বাজারগুলিতে যাতে ভিড় না হয় সে ব্যাপারেও নজরদারি বাড়াবে প্রশাসন। সবাই যাতে মাস্ক পরে তা নিশ্চিত করতে রাস্তায় নজরদারি বাড়বে।

Saradindu Ghosh

Published by:Uddalak B
First published: