Home /News /south-bengal /

Bangla News: বীরভূমের জন্য বিরাট খবর, গোটা বাংলার কাছে যা গর্বের...

Bangla News: বীরভূমের জন্য বিরাট খবর, গোটা বাংলার কাছে যা গর্বের...

বীরভূমের দারুণ সাফল্য

বীরভূমের দারুণ সাফল্য

Bangla News: ১৩৮টি গ্রাম পঞ্চায়েত পুরস্কৃত হল বীরভূমে, উন্নয়নে বাড়তি বরাদ্দ ২৬ কোটি টাকা।

  • Share this:

#বীরভূম: ১৩৮টি গ্রাম পঞ্চায়েত পুরস্কৃত হল বীরভূমে (Birbhum), উন্নয়নে বাড়তি বরাদ্দ ২৬ কোটি টাকা।  কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের "পারফরমেন্স গ্র্যান্ড" পেল বীরভূমের ১৩৮ টি গ্রাম পঞ্চায়েত। জেলার ১৬৭ টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে এই বছরে ১৩৮ টিতে কমপক্ষে ৫০ লক্ষ্য টাকা করে উন্নয়নের বাড়তি টাকা পেয়েছে। জেলা শাসক বিধান রায় জানান, ''রাজ্য সরকার জেলার পঞ্চায়েত গুলির উন্নয়নের ভিত্তিতে এই পুরস্কার দিয়েছে। যে ২৯ পঞ্চায়েত উন্নয়নের নিরিখে কিছুটা পিছিয়ে পড়েছে, জেলার তরফে সেগুলির ওপর বিশেষ নজরদারি করা হবে। আগামী আর্থিক বছরে জেলার সব পঞ্চায়েতকে ওই পুরস্কার পাওয়ার জন্য আমরা জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে সব রকম সাহায্য করবে।"

দু-দিনের জেলা সফরে এসে বীরভূম ঘুরে গ্রামোন্নয়ন ও পঞ্চায়েত দফতরের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় স্বয়ং জানিয়ে গিয়েছেন, "পিছিয়ে থেকে রাজ্যের গ্রামোন্নয়নে এগিয়ে গিয়েছে বীরভূম। সেটা যে মুখের কথা নয় , তার প্রমাণ মিলল 'পারফরমেন্স গ্র্যান্ড' থেকে জেলার জন্য বাড়তি ২৬ কোটি টাকা ১৩৮ টি গ্রামপঞ্চায়েতের আদায় করে নেওয়ায়।"

মূলত গ্রামপঞ্চায়েত কর আদায়, অন্যান্য আয় থেকে বছরে কত নিজস্ব তহবিল করতে পারছে, সারা মাসের খরচ-সহ হিসাব প্রতিমাসের ৫ তারিখের মধ্যে আপলোড করতে পারছে কিনা , আগের কোনো খরচের টাকার ৭৫ শতাংশ কাজের অনুমোদন ও তার মধ্যে ৬০ শতাংশ টাকা খরচ করতে পেরেছে কিনা। নিয়মিত অডিট হয় কিনা, অডিটে কোন গরমিল ধরা পড়ছে কিনা। এই সব তথ্যের সঠিক যোগান দিলে কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকার পারফরমেন্স গ্র্যান্ড দেয় পঞ্চায়েত গুলিকে। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে , গত ২০১৯-২০ বছরে জেলার ৯৩টি গ্রাম পঞ্চায়েত এই তহবিল পেয়েছিল।

আরও পড়ুন: বাংলার প্রকল্প, অথচ দিল্লি হাইকোর্টে প্রশ্নের মুখে পড়ল 'লক্ষ্মীর ভান্ডার'?

জেলাশাসক কাজে যোগ দেওয়ার পর পরই গ্রামোন্নয়ন দফতর গুলিকে কাজের গতি বাড়াতে বিশেষ নির্দেশ দেন। গ্রামোন্নয়ন দফতর পঞ্চায়েত ধরে ধরে নিয়মিত তাদের পর্যালোচনা শুরু করে।মেন্টর অভিজিৎ সিংহ ও জেলাশাসক বিধান রায় জেলা প্রশাসনের আধিকারিকদের নিয়ে গিয়ে ব্লকে ব্লকে আলোচনা বৈঠক করেন। পুরস্কৃত পঞ্চায়েতের সংখ্যা ২০২০-২১ তে দাঁড়ায় ১৩৮তে। যেখানে গত বছরে পুরস্কার মূল্য মিলেছিল ১৪কোটি টাকা সেখানে এবার মিলেছে ২৬কোটি। মেন্টর অভিজিৎ সিংহ বলেন, "এবার আমাদের লক্ষ্য সারা জেলার সব পঞ্চায়েত। তার জন্য আমাদের বাড়তি পরিশ্রম করতে হলে করবো।" গ্রামোন্নয়ন দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, পিরস্কারের বাড়তি টাকায় গ্রাম পঞ্চায়েত তাদের এলাকায় ঢালায় রাস্তা, নিজেদের পঞ্চায়েতের উন্নয়ন, এলাকা উন্নয়নের খাতে খরচ করতে পারবে। বলাবাহুল্য , কাজের নিরিখে পর পর তিনবার জেলা পরিষদ কেন্দ্রীয় সরকারের জাতীয় পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছে। সেই সূত্রেই এবার পঞ্চায়েত গুলিতে পুরস্কার প্রাপ্তি শুরু হল।

Published by:Suman Biswas
First published:

Tags: Bangla News

পরবর্তী খবর