কুমড়ো বীজে রবীন্দ্রনাথ, নেতাজির ছবি ফুটিয়ে তুলে রেকর্ড গড়ল ১০ বছরের কিশোরী

হাওড়া মন্দিরতলার বাসিন্দা দশ বছর বয়েসের মেয়েটি একচিলতে টালির চালের ঘরে বসে স্বপ্ন জয়ের লড়াইয়ে একধাপ এগিয়ে গেল ঋতমা |

হাওড়া মন্দিরতলার বাসিন্দা দশ বছর বয়েসের মেয়েটি একচিলতে টালির চালের ঘরে বসে স্বপ্ন জয়ের লড়াইয়ে একধাপ এগিয়ে গেল ঋতমা |

  • Share this:

#হাওড়া: বয়সটা যতটা কম ঠিক তার থেকে ছোট জিনিসের ওপর ছবি এঁকে এবার দেশের সব থেকে খুদে হিসাবে ইন্ডিয়ান বুক অফ রেকর্ডে নাম তুলে ফেলল ১০ বছরের ঋতমা ধর | হাওড়া মন্দিরতলার বাসিন্দা দশ বছর বয়েসের মেয়েটি একচিলতে টালির চালের ঘরে বসে স্বপ্ন জয়ের লড়াইয়ে একধাপ এগিয়ে গেল ঋতমা |

ছোট থেকেই ছবি আঁকার প্রতি ঝোঁক ছিল৷ শুধু ছবি নয়, নতুন নতুন ভাবে বিভিন্ন জিনিসের ওপর ছবি আঁকার চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছে ঋতমা | তিন বছর বয়েস থেকে খেলতে খেলতে ছবি আঁকা শুরু৷ মেয়ের ছবি আঁকার নেশা দেখে বাবা মা ও এগিয়ে আসে মেয়ের ইচ্ছেকে সফল করার জন্য | তিন বছর বয়েস থেকে অ আ ক খ শেখানোর আগেই মেয়েকে পাঠিয়ে দেন আঁকার শিক্ষকের কাছে | আর সেই মেয়ের নিজের ইচ্ছেই কুমড়োর বীজের ওপর রাবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোস এমনকি কুমড়োর বীজে রং-তুলি দিয়ে ফুটিয়ে তোলে একটি গ্রামের ছবি যা দেখে চক্ষু চরক গাছ বিচারকদের | 

ঋতমার  মা রুপা দেবীর দাবি ছোট থেকেই মেয়ে চেষ্টা করেছিল ডালের ওপর ছবি আঁকতে৷ তবে তা সম্পূর্ণ হচ্ছিল না | পরবর্তীকালে চিরের ওপর ছবি আঁকলেও তাতে রং তুলির ছোয়া লাগাতে যথেষ্ট বেগ পেতে হচ্ছিল ছোট্ট ঋতমাকে | বাবা মায়ের পরামর্শে সে শুরু করে কুমড়োর বীজের ওপর ছবি আঁকার কর্মকাণ্ড | আর একে একে ছোট্ট ঋতমা ফুটিয়ে তোলে একের পর এক সৃষ্টিকলা | মেয়ের সেই সৃষ্টিকলা বাবা তন্ময় বাবু পাঠিয়ে দেন ইন্ডিয়ান বুক অফ রেকর্ডের দফতরে | একই সঙ্গে আরও একটি ছবি যা আঁকা হয়েছিল কাগজে৷ সেই ছবির প্রেক্ষাপট ছিল শিশু কন্যাদের রক্ষা ও সমাজের নারী নির্যতন৷ সেই ছবি মন কেড়ে নিয়েছিল সকল বিচারকদের | বিচারকদের সর্বসম্মতিতে এই বছরে ছোট্ট ঋতমা পায় বিশেষ সম্মান | ছোট্ট ঋতমার ইচ্ছে আরও ভাল কিছু করে তার সৃষ্টিকলা নিয়ে বিশ্বজয়ী হওয়ার | আর সেই লক্ষ্যেই পা বাড়াচ্ছে চতুর্থ শ্রেণীর ঋতমা | এবার তার লক্ষ্য গিনিসবুকে নাম তোলার |

Published by:Pooja Basu
First published: