corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা আরও বাড়ল ! নিজামুদ্দিন যোগ রয়েছে, ভাটপাড়ায় মিলল এমন ১০ জনের হদিশ

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা আরও বাড়ল ! নিজামুদ্দিন যোগ রয়েছে, ভাটপাড়ায় মিলল এমন ১০ জনের হদিশ

১০ জনকেই ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে

  • Share this:

#ভাটপাড়া: নিজামুদ্দিনে যোগ রয়েছে, ভাটপাড়ায় মিলল এমন ১০ জনের হদিশ। ১০ জনকেই ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চলছে স্বাস্থ্য পরীক্ষা। ১০ জনের মধ্যে ৩ জন মহিলা। একইসঙ্গে নিজামুদ্দিন ফেরত ৯ জনের হদিশ মিলল খড়্গপুরে। ৭ বিদেশি সহ ৯ জন খড়গপুরে যান। পুলিশ ৯ জনকেই আটক করেছে, তাঁদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। কলকাতায় পাঠানো হবে ৯ জনকে।

দিল্লির মরকজ নিজামউদ্দিনের তবলিগি জামাতের ধর্মীয় সমাবেশে জমা হওয়া কয়েক হাজার জনের মধ্যে ৯ হাজার জনকে চিহ্নিত করেছে কেন্দ্র। তার মধ্যে ৭৬০০ জন ভারতীয় ও ১৩০০ জন বিদেশী রয়েছে। সূত্রের খবর, এই সংখ্যাটা আরও বাড়তে পারে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ১ এপ্রিল তবলিঘি জামাতে যাওয়া ১০৫১ জনকে কোয়েরেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে। তার মধ্যে ২১ জন করোনা পজিটিভ। মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। একই সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানাচ্ছে, ৭৬৬৮ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে যাদের কোয়ারেন্টাইনে নেওয়ার তোরজোর চলছে।

সারা দেশে নিজামুদ্দিন যোগে আক্রান্তের সংখ্যা ৪০০। এর মধ্যে তামিলনাড়ু থেকে রয়েছেন ১৯০ জন। ৭১ জন রয়েছেন অন্ধ্র থেকে। দিল্লি ও তেলেঙ্গানায় করোনা আক্রান্ত ৫৩ ও ২৮ জন। মার্চ মাসের প্রথম দুই সপ্তাহে দিল্লির আলমি মার্কেজ বাঙ্গালেওয়ালি মসজিদে ধর্মীয় জমায়েতের ডাক দেয় তবলিঘি জামাত। সেখানে যোগ দেয় দেশ বিদেশের হাজার মানুষ। ক্রমে ওই সমাবেশে যাওয়া বহু জনের মধ্যে সংক্রমণ ছড়াতে থাকে। সামনে আসে মৃত্যুর ঘটনাও। ঘটনা জানাজানি হতেই নড়েচড়ে বসে কেন্দ্র। সিল করা হয় ওই মসজিদ। রাজ্যগুলিকে তল্লাশি চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়।

বিভিন্ন রাজ্য থেকেই ওই সমাবেশ ফেরতদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বুধবার মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন ৫৪ জনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছ এই রাজ্য থেকেও। চলছে চিহ্নিতকরণের কাজ। বিষয়টি নিয়ে চাঞ্চল্য ছড়াতে সতর্কবার্তা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বুধবার এক দিনে দেশ জুড়ে করোনায় আক্রান্ত হলেন ৪৩৭ জন মানুষ। পরিসংখ্যান বলছে করোনা থাবা বসানোর পর থেকে এক দিনে সর্বোচ্চ আক্রান্ত হলেন বুধবারই। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ওয়েবসাইট অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত গোটা দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ১৮৩৪।

এখনও পর্যন্ত দেশে করোনার জেরে মৃত্যু হয়েছে ৪১ জনের। তবে আশাও রয়েছে। ১৪৪ জন করোনা আক্রান্ত সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন।

বুধবারই স্বাস্থ্য সচিব লাভ আগরওয়াল জানান, হঠাৎ করে এই এত মানুষের মধ্য সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার বড় কারণ তবলিঘির জামাত। দেশে করোনা সংক্রমণের গতি এমনিতে খুব বেশি বাড়েনি। লাভ আগরওয়ালের মতে নতুন করে ২৪ ঘণ্টায় যারা আক্রান্ত হয়েছেন তাদের অন্তত ১৫০ জন নিজামুদ্দিন জমায়েত থেকে নানা অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছিল। সেখান থেকেই বিপত্তির শুরু। সমস্ত রাজ্যগুলিকে সতর্ক করা হয়েছে। জানানো হয়েছে জরুরিকালীন ভাবে তল্লাশি চালিয়ে বের করতে কোনও নিজামুদ্দিন-ফেরত বাসিন্দা লুকিয়ে রয়েছেন কিনা। ওই স্বাস্থ্য আধিকারিক জানিয়েছেন ইতিমধ্যেই দিল্লিতে ১৮০০ জনকে কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে।

Published by: Rukmini Mazumder
First published: April 2, 2020, 12:36 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर