Home /News /south-24-parganas /
South 24 Praganas: পানীয় জল ব্যবহারের সুযোগ পেতে চলেছেন বহরু এলাকার সাধারন মানুষ

South 24 Praganas: পানীয় জল ব্যবহারের সুযোগ পেতে চলেছেন বহরু এলাকার সাধারন মানুষ

নতুন [object Object]

দীর্ঘদিন পর আর্সেনিকমুক্ত পানীয় জল পেতে চলেছে বহরু এলাকার মানুষ।  জয়নগর বিধানসভার জয়নগর ১ নম্বর ব্লকের অধীনে বহরু গ্রাম পঞ্চায়েতের মল্লভপুর এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে পানীয় জলের স্থায়ী ব্যবস্থা ছিলনা। আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ চালু হয়ে গেল। খুশি এলাকার সাধারণ মানু

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    #দক্ষিণ ২৪ পরগনা : দীর্ঘদিন পর আর্সেনিকমুক্ত পানীয় জল পেতে চলেছে বহরু এলাকার মানুষ। জয়নগর বিধানসভার জয়নগর ১ নম্বর ব্লকের অধীনে বহরু গ্রাম পঞ্চায়েতের মল্লভপুর এলাকায় পানীয় জলের রিজার্ভার দীর্ঘদিন যাবত জীর্ণ অবস্থায় থাকায় যেকোনো মুহূর্তে ভেঙে গিয়ে বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারতো সেই মতো এলাকার বাসিন্দারা বহুরু গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে ও বিধায়কের কাছে তারা দ্বারস্থ হয়েছিল কারন মল্লভপুর, তাজপুর, কামদেবপুর, দক্ষিণপাড়া ,হাসিমপুর ,বহরু গ্রামের প্রায় দশ হাজার মানুষ পানীয় জল থেকে বঞ্চিত ছিল। এলাকার মানুষের পানীয় জলের কথা ভেবে জয়নগরের বিধায়ক বিশ্বনাথ দাস জনস্বাস্থ্য কারিগরি দপ্তরের মন্ত্রীর সাথে কথা বলেন এবং নতুন করে একটি রিজার্ভার করার প্রস্তাব দেন। সেই রিজার্ভার তৈরির কাজের আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ চালু হয়ে গেল।

    বহরু এলাকার এক বাসিন্দা তন্দ্রা দাস বলেন আমাদের এলাকায় গত কয়েক বছর ধরে পানীয় জলের প্রচন্ড সমস্যা হচ্ছে কারণ আমাদেরকে আর্সেনিক মুক্ত জল আনতে প্রায় তিন চার কিলোমিটার দূরে গিয়ে আনতে হতো। দীর্ঘদিন পর গ্রামের মধ্যে বাড়ির কাছে নতুন রিজার্ভারের মাধ্যমে বাড়িতে বাড়িতে আর্সেনিকমুক্ত জল পাবো পাশাপাশি জল পাওয়ার কাজ শুরু হওয়ায় খুশি আমরা।

    আরও পড়ুনঃ গৃহবধূর উপর পাশবিক অত‍্যাচার! শরীরে গরম রডের ছ‍্যাঁকা দেওয়ার অভিযোগ

    পাশাপাশি পি এইচ ই দফতরের কর্মীরা জোর কদমে রিজার্ভারের কাজ শুরু করে দিয়েছে কারণ ৮ মাসের মধ্যে কাজ শেষ করতে হবে এবং বাড়ি বাড়ি আর্সেনিকমুক্ত প্রাণীয় জল ও পৌঁছে যাবে সেই কথা মাথায় রেখে দিনরাত এক করে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে পি এইচ ই কর্মীরা।

    আরও পড়ুনঃ নাব‍্যতা কমছে কাকদ্বীপ মৎসবন্দরের, অসুবিধায় মৎসজীবীরা

    জনস্বাস্থ্য কারিগরি দফতরের সহবাস্তুকার শুভাশিস রায় তিনি জানান, প্রায় দু কোটি টাকা ব্যয়ে এই রিজার্ভার আগামী ৮ মাসের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে এবং তার জন্য বেশি পরিমাণে লেবার বরাদ্দ করা হয়েছে পাশাপাশি এলাকার প্রায় দশ হাজার মানুষ এই রিজার্ভারের মধ্য দিয়ে পানীয় জল ব্যবহারের সুযোগ পাবে।

    Suman Saha
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: South 24 Parganas

    পরবর্তী খবর