Home /News /south-24-parganas /
South 24 Parganas: জানার ঘেরীতে এখনও নদীবাঁধের উপর কাঁচা রাস্তা! সমস্যায় স্থানীয়রা

South 24 Parganas: জানার ঘেরীতে এখনও নদীবাঁধের উপর কাঁচা রাস্তা! সমস্যায় স্থানীয়রা

জানার [object Object]

নন্দকুমারপুরের জানার ঘেরীতে এখনও আছে নদী বাঁধের উপর মাটির কাঁচা রাস্তা। এই রাস্তা দিয়ে যাতয়াত করেন প্রায় হাজার খানেক স্থানীয় বাসিন্দা।

  • Share this:

    #রায়দিঘী : নন্দকুমারপুরের জানার ঘেরীতে এখনও আছে নদী বাঁধের উপর মাটির কাঁচা রাস্তা। এই রাস্তা দিয়ে যাতয়াত করেন প্রায় হাজার খানেক স্থানীয় বাসিন্দা। দীর্ঘ কিলোমিটার এই রাস্তা নদী বাঁধের উপর উপস্থিত। স্থানীয়রা দ্রুত এই মাটির রাস্তা সংস্কারের দাবি তুলেছেন। জানারঘেরীর এই রাস্তা নদী বাঁধের উপর অবস্থিত হওয়ায় প্রতি কোটালে সেখানে সমস‍্যার সৃষ্টি হয়। নদীর জল মাটির এই বাঁধ টপকে মাঝে মধ‍্যে গ্রামে প্রবেশ করে। সেক্ষেত্রে বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হলে বাঁধের উপর থাকা মাটির রাস্তাও বেহাল হয়ে পড়ে।

     

     

    সেজন‍্য স্থানীয়রা বাঁধটিকে উঁচু করার দাবি জানিয়েছেন। এই নদীবাঁধ পুরোটাই মাটির হওয়ায় বর্ষার সময় খুবই অসুবিধা হয় স্থানীয় গ্রামবাসীদের। বৃষ্টির জল পড়ে নদীবাঁধ কর্দমাক্ত হয়ে যাওয়ায় গ্রামের শিশুরা স্কুলে যেতে পারেনা। বর্ষার সময় গ্রামের কোনো ব‍্যক্তি অসুস্থ হলে এই মাটির রাস্তা দিয়ে হসপিটালে নিয়ে যেতে হয় তাদের। নদীর নোনা জল মাঝে মধ‍্যে নদীবাঁধ টপকে গ্রামে প্রবেশ করায় ক্ষতি হয় চাষের।

    আরও পড়ুনঃ স্কুলের বেহাল দশার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ছাত্রছাত্রীদের

     

     

    নদীর নোনাজলে মারা যায় মিষ্টি জলের মাছও। এই বেহাল রাস্তা নিয়ে স্থানীয় এক গ্রামবাসী বাসুদেব জানা জানিয়েছেন কাঁচা রাস্তায় কোনো সময় মাটি পড়ছেনা, ফলে রাস্তাসহ নদীবাঁধ নীচু হয়ে যাচ্ছে। কিছুদিন আগের কোটালে নদীবাঁধ উপচে জল এসেছিল গ্রামে। গ্রামবাসীরা সকলে মিলে তখন নদীবাঁধ রক্ষার কাজে হাত লাগাই। বারবার প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের কাছে বলেও কোনো কাজ হচ্ছেনা। এই রাস্তা সহ নদীবাঁধ দ্রুত সংস্কার হলে ভালো হয়।

    আরও পড়ুনঃ পুরন্দরপুর হসপিটাল রোডের বেহাল দশা! অসুবিধায় স্থানীয় মানুষ

     

     

    নিয়ে নন্দকুমারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস‍্য স্বপন কুমার ঘাটি জানান নদীবাঁধটি সুন্দরবন সংরক্ষিত বনাঞ্চল লাগোয়া, সেজন‍্য ওখানে মাটি পাওয়ার ক্ষেত্রে সমস‍্যা রয়েছে। জায়গাটি খুব নীচু এলাকা। ওখানে মাটি ফেলতে গেলে মাটি বাঁধ পর্যন্ত আসবে কিনা তা বলা শক্ত। সেজন‍্য ইরিগেশান ডিপার্টমেন্টের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। খুব শ্রীঘ্রই এই কাজ শুরু হবে।

     

     

     

    Nawab Mallick

    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Raidighi, South 24 Parganas

    পরবর্তী খবর