হোম /খবর /দক্ষিণ ২৪ পরগনা /
অ্যাডিনো 'আতঙ্ককে' কাবু করতে তৈরি ডায়মন্ডহারবার!

South 24 Parganas News: অ্যাডিনো 'আতঙ্ক' সামলাতে প্রস্তুত ডায়মন্ডহারবার, দ্রুত তৈরি করা হয়েছে বিশেষ পরিকাঠামো

ডায়মন্ডহারবার মেডিক্যাল কলেজ

ডায়মন্ডহারবার মেডিক্যাল কলেজ

অ্যাডিনো ভাইরাসের আতঙ্কে কাঁপছে বাংলা। শিশুদের বাঁচাতে রাতের ঘুম উড়েছে অভিভাবকদের। তবে যে কোনও জটিল পরিস্থিতি মোকাবিলায় তাঁরা প্রস্তুত বলে জানিয়েছে ডায়মন্ডহারবার স্বাস্থ্য জেলা

  • Share this:

দক্ষিণ ২৪ পরগনা: অ্যাডিনো ভাইরাস ক্রমশই আতঙ্ক তৈরি করছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। গত এক মাসে বাংলায় প্রায় ১৩ জন শিশুর মৃত্যু হয়েছে এই ভাইরাসের প্রভাবে। ফলে রাতের ঘুম উড়েছে অভিভাবকদের। অনেকেই করোনার মত অ্যাডিনো ভাইরাসকে মহামারীর ঘোষণা করার দাবি তুলতে শুরু করেছে। এর প্রভাবে ঘরে ঘরে শিশুরা জ্বর, সর্দি, কাশিতে ভুগছে। বড়রাও বাদ নেই। এই উপসর্গ নিয়ে প্রতিদিন অসংখ্য শিশু আসছে সরকারি হাসপাতালগুলিতে। তবে অ্যাডিনোর দাপট সামলাতে তাঁরা প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন ডায়মন্ডহারবার স্বাস্থ্য জেলার আধিকারিকরা।

ইতিমধ্যে সব হাসপাতালে আ্যডিনো ভাইরাস আক্রান্তের চিকিৎসা কীভাবে করতে হবে তার গাইডলাইন পাঠিয়েছে স্বাস্থ্য ভবন। সেই নির্দেশ মেনে তাদের অধীনে থাকা প্রতিটি হাসপাতাল ও চিকিৎসাকেন্দ্রে স্বাস্থ্য পরিকাঠামো গড়ে তুলেছে ডায়মন্ডহারবার স্বাস্থ্য জেলা। সুন্দরবনের বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষ চিকিৎসার জন্য ডায়মন্ডহারবার গভর্নমেন্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ব্যবহার করে। সেই কারণে এখানে বাড়তি সতর্কতা নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: সিতাইয়ের কমিউনিটি হলে দুঃসাহসিক চুরি, খোয়া গেল লক্ষাধিক টাকার সামগ্রী

এই নিয়ে ডায়মন্ডহারবার স্বাস্থ্য জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক জয়ন্ত কুমার সুকুল জানান, আ্যডিনো ভাইরাস মোকাবিলায় রাজ্যের স্বাস্থ্য আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। নির্দিষ্ট গাইডলাইন মেনে কাজ চলছে। শিশুদের সুরক্ষায় একাধিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এমনিতেই ডায়মন্ডহারবার গভর্নমেন্ট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে শিশুদের জন্য আলাদা বিভাগ আছে। এখানকার পেড্রিয়াট্রিক কেয়ার ইউনিট যেকোনও পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত বলে দাবি করা হয়েছে। এছাড়াও কাকদ্বীপ মহাকুমা হাসপাতালেও প্রস্তত করা হয়েছে পিকু ভেন্টিলেটর। বেশ কিছু সাধারণ সতর্কতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে শিশুদের অভিভাবকদের। শিশুদের পুষ্টির দিকে লক্ষ্য রাখতে বলা হয়েছে। কোন‌ও শিশুর অসুস্থতা বাড়লে দেরি না করে তাকে সঙ্গে সঙ্গে সরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

নবাব মল্লিক

Published by:Kaustav Bhowmick
First published:

Tags: Adenovirus, Diamond Harbour, South 24 Parganas news