গোরখপুরে শিশুমৃত্যুর ঘটনায় সরিয়ে দেওয়া হল ওয়ার্ড হেড কাফিল খানকে

উত্তরপ্রদেশের গোরখপুরের বিআরডি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৬৩টি শিশুর মৃত্যু বহু প্রশ্ন তুলে দিয়েছে।

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Aug 14, 2017 03:25 PM IST
গোরখপুরে শিশুমৃত্যুর ঘটনায় সরিয়ে দেওয়া হল ওয়ার্ড হেড কাফিল খানকে
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Aug 14, 2017 03:25 PM IST

#গোরখপুর: গোরখপুরের বিআরডি হাসপাতালে ট্র্যাজেডিতে মুখ পুড়েছে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের। উত্তরপ্রদেশের গোরখপুরের বিআরডি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৬৩টি শিশুর মৃত্যু বহু প্রশ্ন তুলে দিয়েছে। ওই ট্র্যাজেডি অক্সিজেনের অভাবেই ঘটেছে বলে অভিযোগ উঠছে বারবার। কিন্তু শিশু মৃত্যুর সময় হাসপাতালে নিজের পকেট থেকে টাকা খরচা করে ৩টি অক্সিজেন সিলিন্ডার জোগাড় করে দিয়েছিলেন যে চিকিৎসক সেই কাফিল খানকে সরিয়ে দেওয়া হল হাসপাতাল থেকে ৷ অভিযোগ সরকারি হাসপাতালে চাকরি করার পাশাপাশি প্রাইভেট প্র্যাকটিস করেন তিনি ৷

মেডিকেল এডুকেশনের ডিরেক্টর জেনারল কে কে গুপ্তা জানিয়েছেন, হাসপাতালে অক্সিজেনের সিলিন্ডার ছিল ৷ বাইরে থেকে তার ব্যবস্থা করার কোনও দরকার ছিলনা ৷

অগাস্ট ১০ তারিখ রাতে হাসপাতালে ৫২টি সিলিন্ডার ছিল ৷ তাহলে বাইরে থেকে তিনটি সিলিন্ডার আনার কী দরকার ছিল ?প্রশ্ন হচ্ছে তিনি এমন কেন করেছিলেন ?

কাফিল খানের বিরুদ্ধে সরকারি হাসপাতলের পাশাপাশি প্রাইভেট ক্লিনিক চালানোর অভিযোগ উঠেছে ৷

ঘটনার শুরু থেকেই ঠারেঠোরে সংবাদমাধ্যমের দিকে আঙুল তুলেছেন যোগী। অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যুর কথা সংবাদমাধ্যম বললেও, তা মানতে নারাজ তিনি। এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে ঘুরিয়ে সহানুভূতি কুড়নোর চেষ্টাও করেন তিনি।

বিআরডি হাসপাতালের ঘটনায় চাপে কেন্দ্রও। শনিবার থেকে ওই হাসপাতালে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদের যাওয়া আসা লেগেই রয়েছে। রবিবার যান কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেপি নাড্ডা। যোগীর পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন তিনি। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সোমবার আসছে কেন্দ্রীয় চিকিৎসক দলও।

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। দোষ প্রমাণ হলে শাস্তির হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে। কিন্তু, শিশুমৃত্যুর পিছনে এনসেফালাইটিসের তত্ত্বকে বারবার সামনে আনা ভিন্ন প্রশ্ন তুলে দিল।

First published: 12:52:47 PM Aug 14, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर